পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/১৪৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


दिउँौघ्र अक्षाग्रि । 53 মিনিট পরে যখন দেখিবে ফেন সরাকে তুলিয়া উথলির উঠতেছে; তখন সরাটা খুলিয়া রাখিবে ও হাত দিয়া ভাত নাড়িয়া দিবে এবং উনানে বাভাস দিয়া জ্বলন্ত আঁচ করিয়া দিতে হুইবে । তিন চার মিনিট অন্তর হু তিনবার হাত দিয়া ভাত নাড়িয়া দিবে এবং দুএকবার হাতায় করিয়া ভাত তুলিয়া তর্জনী এবং বৃদ্ধাজুলিতে ভাত টিপিয়া দেখিবে ভাত সিদ্ধ হইয়াছে কি না। চাল দিবার প্রায় মিনিট কুড়ি পরে ভীত হইয়া গেলে অধিসের থানেক র্কাচ জল ইছাতে ঢালিয়া দিবে। পরে লেভা লইয়া হাড়ির গায়ে যে সব ফেন পড়িয়াছে, তাহা মুছিয়া ফেলিয়া হাড়িটা পরিষ্কার করিয়া লইবে । হাড়ির মুখে সরা চাপা দাও ! ফেন গালিবার নালার কাছে একটি বিড়া পাত ; বেড়ী করিয়া অথবা লেতা দিয়া ঠাড়ি নামাইয়া বিড়ার উপরে রাখ। সরার মধ্যস্থলে ডান হাতে লেতা দিয়া চাপিয়া ধর, আর বাম হাতে বেড়ীর গলা ধরিয়া হাড়ি কাৎকরিয়া ফেন করাও । প্রায় সমস্ত ফেন পড়িয়া গেলে আস্তে আস্তে লেতা ঠেকুন দিয়া ফাড়ি উপুড় করিয়া দাও। কিন্তু উপুড় করিবার সময় সরাট বরাবর খুব চাপিয়া থাকিতে হইবে, মাহীতে ভাত না পড়িয়া যায়, তার পরে আট দশ মিনিট পরে ইঁাড়ি উঠাইয়া বাঁকড়াইয়া রাখ ; তাহ হইলে যে সব ডেলা ভাত থাকিবে সব আলাদা আলাদা হুইয়া ঝরঝরে হইবে । ভাত হইতে কুড়ি হইতে ত্রিশ মিনিটের মধ্যে সময় লাগে। সাধায়ণতঃ সকল চালের ভাতই এই প্রকারে রাধ। হইয়া থাকে ।