পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/১৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিতীয় অধ্যায় । 歌》 (একসের টাক্),মুন, লঙ্ক, আদাও পেঁয়াজ কুচি সব একত্র রাখিয়া ছাড়ির মুখে সরা ঢাকা দিয়া উনানে চড়াইয়া দাও । জল উথলিয়া উঠিলে সূরা খুলিয়া রাখিবে। কুড়ি কি পঁচিশ মিনিট পরে দেখিৰে চালসিদ্ধ হইয়া ভাত হইয়া গিয়াছে। তখন ডাল ঘুটুনি এই ভাতের ভিতরে রাখিয়া ঘুরাইয়া ঘুরাইয়া খুব ঘুটিয়া দাও। উনানের উপরে হুঁড়ি রাখিয়া যদি ঘুটিয়া দিবার সুবিধা না হয় তাহা হইলে হাড়ি উনান হইতে নামাইয়া তারপরে ঘুটিয়া দিবে। এমনি ঘুটিয়া দেওয়া চাহি যে যাহাঁতে ভাত ভাঙ্গিয়া ভাঙ্গিয়া ফেনের সঙ্গে অনেকট মিশিয়া যায়। যদি ডাল ঘুট্‌নি না থাকে তাহা হইলে ছাড়ির ভিতরে পাশ্বের দিকে হাতার পিছন দিক দিয়া ঘষিয়া ঘষিয়া ভাত খুব মাড়িয়া দিলেও হয়। কলাই করা হাড়িতে এরূপে হাত দিয়া ভাত মাড়িতে পারা যায়, কিন্তু মাটীর হাড়িতে তাহা পারা যায় না। ভাতে ফেনে মিশিয়া গেলে খাটি নারিকেল দুধটা ইহাতে ঢালিয়া দাও। দশ পনর মিনিট আরো ফুটিতে দাও। এই নারিকেল দুধ দিলে ভাতে খুব ভাল গন্ধ বাহির হয়। তারপরে নামাইয়া গরম গরম খাইতে দিবে। মাদ্রাজ উপকূলবাদীরা মালাই ফেন্স ভাত, শুটুকি মাছ পোড়া দিয়া থাইতে ভাল বাসে । নিরামিষ পোলাও । প্রয়োজনীয় কথা । চাল। —— সামান্ত ভীতও রাধিবার গুণে যে রাজভোগ্য খাঞ্চে পরিণত হইতে পারে, পোলাও তাহার প্রমাণ। পোলাও রাধিক্ষে