পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/২১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


2 Φθ আমিষ ও নিরামিষ আহার । এক ছটাক, কিসমিস এক ছটাক। এইগুলি চাল ভাজ। মললা । জল তিন পোয়া, জাফরান চার পাঁচ রতি। প্রণালী।—নেবৃগুলার খোসা ছাড়াইয়া ধুইয়া রাখ। প্রত্যেক কোয়ার ব্লগ (মৃত্যর ন্যায় যে সাদা সাদা শুীয় গুয়া থাকে) উঠাইয়া ফেল। কোয়াগুলির মুখে ছুরি দ্বারা চির দিয়া বিচি বাহির কর। দেড় পোয় চিনি ও দেড় পোরা জল চড়াইয়া তাহাতে কমলানেবু গুলা ছাড়িয়া দাও । মিনিট পনের পরে হাড়ি নামাইয়। খানিকক্ষণের জন্য (মিনিট দশের জন্য) রাখিয়া দিবে, তাহ হইলে কমলানেবুগুলার ভিতর হইতে জল বাহির হইয় রসট পাতলা হইয়া আসিবে ; তখন ফের চড়াইতে হইবে। তিন রতি জাফরান রসে ফেলিয়া দিবে। রস এক পোয়াটাক আন্দাজ থাকিতে নামাইবে । ইহার পর হইতে চালভাজা প্রভৃতি সমস্তই উপরিলিথিত আপেলী পোলাওয়ের ন্যায় করিতে হইবে। ৩৭ । কমলা পোলাও (দ্বিতীয় প্রকার )

  • 4:

উপকরণ । কমলানেবু নয় দশটা, ডালচিনি দু স্থির, লঙ্গ পাঁচ ছয়ট, ছোট এলাচ দুটা, আধ ছটাক বাদাম কুঁচ, আধ ছটাক কিসমিস, কুমড়ার মেঠাই এক পোয়ী, চিনির রস দেড় পোয় । এইগুলি রসের মসলা । ধি দেড় ছটাক, তেজপাত দুটা, লঙ্গ দশটা, এলাচ চারি পাচটা, ডালচিনি দু গির। এইগুলি ঘি দাগ দিবীর মসলা । চাল এক পোল্লা, জল পাঁচ পোয় । ।