পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/২৩৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিতীয় অধ্যায় । so, মিলেট, তেমতির (বিলাতি বেগুণ) চাটনী বা ভৰ্ত্তা, ওলের ভর্তা প্রভৃতি খাও । ৫৪। আলুবোখারীর খিচুড়ি । উপকরণ।-আলুবোখার অধি পোস্ক, চাল এক পোয়, ডাল (মস্থর বা মুগের ডাল) আধ পোয়, ঝুনা নারকেল একট, জিরা সিকি তোলা,লঙ্গ দশ বারটা, দালচিনি একগিরা, দুইটা তেজপাভ, BB BB BB BBBS BB BB BBS BSB BB BBBS মুন সিকি তোলা, জাফরান পাঁচ ছয় রতি, ছোটএলাচ বারট। প্রণালী । — আনুপেপার গুলি খানিকটা (দেড় পোয়াটাক) জলে আধ ঘণ্টার জন্ত ভিজাতে দিবে ; তার পরে সিদ্ধ করিতে, আগুনে চড়াইবে । আট নয় মিনিটে জলটা ফুটিলেই, আলুবোখারাগুলি হাড়ি হইতে উঠাইয়া একটা পাত্রে রাখিবে । সিদ্ধ করিলে, আলু বাখারার টকট একটু মরিয়া যাইবে । নারিকেলটি কুরিয়া রাখ । একটি হাড়িতে তিন পোয় জল গরম করিতে চড়াও । প্রথমে এক পোয়া গরম জলে কোর} নারিকেল গুল খুব কচলাইয়া কচলাইয়া, খাট দুধ বাছির কর । ছিবড়াগুলা অবশিষ্ট আধসের জলে গুলিয়া, জলীয় দুধ বাহির কয়। থাটি দুধ এবং জলীয় দুধ উভয়ই ছাকিয়া একত্র রাথ । একটি হাড়িতে ঘি চড়াইয়া, তাহাতে লঙ্গ, দালচিনি, তেজপাতা, জিরা ছাড় । পাচ ছয় মিনিট পরে, মশলা ফুটিলে, শিকি তোলা আদাবণটা ছড়ি এক মিনিট কষিয়া, আটটা ছোট এলাচ, চাল ও ডাল এক সঙ্গে ছাড় । চাল ও ডাল ক্রমাগতঃ খুন্তি দ্বারা নাড়িয়া চড়িয়া ভাজিতে হইবে। সাত আট মিনিট ধরির