পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ه/و সে সময়ের সহজ ভাব। ইহা মরীচি, কশ্যপ প্রভৃতি প্রজাপতি ঋষিদিগের সময়কার কথা বলিতেছি । এই প্রজাস্বষ্টির সময়ে মানবসমাজ প্রকৃতপক্ষে প্রকৃতির স্থতিকাগৃহে অবস্থিতি করিতেছিল বলা যাইতে পারে। এ মহাতারতাদি প্রাচীন ইতিহাস গ্রন্থের সাহাষ্যে জানা যায় যে এই কশ্যপ প্রভৃতি প্রজাপতিগণই দেব দানব উরগ যক্ষ রক্ষ প্রভৃতি নানা জাতীয় মানবের উৎপত্তির মূলে । পাশ্চাত্য পণ্ডিতেরা যে আজকাল পৃথিবীর সমস্ত মনুষ্য জাতিকে, ককেশিয়, মোঙ্গোলিয় প্রভৃতি তিন চারিট ভাগে বিভক্ত করেন, ইহাদিগের সকলেরই মূলে কশ্যপ প্রভৃতি প্রজাপতিগণ । কেবল দেশ, অবস্থা ও আচারতেদে আর্য্য অনাৰ্য্যের মধ্যে প্রভেদ কালে এতটা বদ্ধমূল হইয়া গেছে নহিলে কশ্যপ প্রভৃতি প্রজাপতিরূপ বীজ হইতে আর্য্য অনার্য্য প্রভৃতি নানা শাখা প্রশাখার বিভক্ত সুবিশাল মানব বৃক্ষের উৎপত্তি। এ সকল প্রমাণ সহকারে “মানব জাতিতত্ত্বে” সবিশেষ আলোচনা করা গিয়াছে। এ ভূমিকা সে সকলের বিস্তৃত আলোচনার স্থান নহে। প্রকৃত পক্ষে এক্ষণে যাহারা এক একট প্রধান জাকিরূপে পরিণত, এককালে তাহারা জ্ঞাতি সম্বন্ধে সস্বদ্ধ ছিল । জ্ঞাতিবিরোধই ক্রমে বিশালত প্রাপ্ত হইয়া অনেকস্থলে জাতিবিরোধ বা জাতিশক্রতায় পরিণত কইয়াছে। এই অদিম প্রজাপতি ঋষিগণ হইতে নানা জাতীয় মানব উৎপন্ন হইলেও উহাদিগের মধ্যে প্রথমে দেবতারাই জ্ঞানে বিজ্ঞানে ও ধীশক্তিতে সৰ্ব্ববিষয়ে অন্যান্য শাখার বা

  • মরীচি, কশ্যপ প্রভৃতি প্রজাপতিগণেরও মুলে জগতের আদিপুরুষ ব্রহ্মা । ব্ৰহ্মা স্বয়ম্ভূ অর্থাৎ স্ত্রী পুরুষের সংযোগে ইহার স্বষ্টি হর নাই। ইনি ঈশ্বরকৃষ্ট আদি পুরুষ বা প্রথমতে মমুয্য । তাই ব্ৰঙ্ক স্বষ্টিশক্তিরূপে কf.ত হযেন ।