পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/২৫৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


》够妙 আমিষ ও নিরামিব অাৰায় । পেয়াজ ও কাঁচ লক্ষ কুচি গুলি ভিজিতে দাও ; হুই এক ঘণ্ট রোঙ্গে রাখিয়া দাও, অথব উনানের পাঙ্গে রাখিয়া দাও । তার পরে বেগুন পোড়াইয়া, তাহাতে আtধ তোলা মুন, এক কাচ্চা সরিষা তেল মাধ ; তার পরে নেবুর রসে ভিজান কাচা লঙ্কা ও পেয়াজ কুচি মাথ। নেবুর রস আপনার রুচি অমুসারে দিবে। গুণাগুণ – অঙ্গ রপক্কা বৰ্ত্তিী কী কিঞ্চিৎ পিত্ত্বকরী মত । কফমেদোহনিলহরা সরা লঘুতর পর ॥ (র ৪ বল্লভ) পোড়া বেগুন ঈবং পিত্ত কর, লঘুপাক, সারক, এবং কফ, মেদ ও বা স্তনাশক । JBBS BBBBB BBB BBB BBBBee BBB BB BBS BB কন্তু তেলে মাথা বেগুনের বিষয় ভাব প্রকাশ বলেনঃ– “তদেব হি গুরু স্নিগ্ধং স ৈতলং লবণান্ধি শুং” ৷ (ভাব প্রকাশ) তেল ও মুন দিয়া বেগুন পোড়া মাখিলে, উহা স্নিগ্ধ ও গুপপাক হইয়া থাকে । ৭২ । বে গুল ভর্তা । প্রণালী – একটি কচি দেখিয়া বেগুন ল ও ; এ বেগুন আর চিরিতে হইবেন; অস্তি বেগুনে একটা মোট ছুচ দিয়া চারিদিকে চারিট বিধ কর । দুই ধারে দুই গৰ্ত্তের ভিতরে, দুইটা কাচা লঙ্ক ও অল্প চুই দিকে দুই কোয় রহন (আস্ত রমুনের মধ্য হইতে দুই কোয় মাত্র) ঢুকাইয়া দাও ; গরম ছাইয়ে যেমন পোড়াইতে হয়