পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/২৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


$' আমিষ ও নিরামিষ আহার । অতিশয় দীপন, এবং শূল, কুষ্ঠ, ক্ষয়, শ্বাস ও গুল্ম রোগের শান্তি কারক । ৯৮। নাউ ও কুমড়া শাক ভাতে । প্রণালী ।-নাউ শাক বা কুমড়া শাকের কচি ডগা অনিয়া, একটি কাপড়ে বাধিয়া অথবা দুতিনটা একত্র বাধিয়া ভাতে ফেলিয়া দাও । তারপরে নামাইয় তাহীতে তেল, মুন আর ইচ্ছ। হয়তো একটু কাচা লঙ্কা মাখিয়া থাও । গুণাগুণ –কুষ্মাগু নাড়িকা গুবী তথা চাশ্মীনাশিনী । সক্ষারী মধুরা রুক্ষণ রুচ্য বাতকফপহ ॥ (রাজবল্লভ) কুমড়ার ডাটা গুরুপাক, পাথরী রোগ নাশক, ক্ষারযুক্ত, মধুর, ক্রক্ষ, রুচিকর এবং বাত ও শ্লেষ্মানাশক । অলাধু নাড়ী কা গুৰ্ব্বী মধুরা মলভেদিনী ॥ (রজি বল ভূ} নউ ডাটা গুরুপাক, মধুর, ও মলভেদ কারক । ৯৯ । মূল সিদ্ধ । প্রণালী — কচি দেখিয়া মূল আনিয়া, তাহার cথাসা ছাড়াইয়া, খণ্ড খণ্ড করিয়া কাটিয়া জলে সিদ্ধ করিতে দাও ; তার পরে, তাহাতে স্থন, সরিষা তেল ও একটু রাই বা শাদ। সরিষা বাট মাথিয় খাও । খিচুড়ির সঙ্গে অন্যান্য ভাতে ভাত্তের স্তায় কাচা মুলা খোদা DDDD Kg Kg gS BK BBBB BBB BBS