পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/২৮১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তৃতীয় অধ্যায়। > * (t কঁঠালবীচি বৃষ্য অর্থাৎ পুষ্টিকর, মধুর, গুরু, মলবদ্ধকর ও মৃত্রকারক। ১১৭ । কাঠালবীচি সিদ্ধ । প্রণালী।—কাঠালবীচি সিদ্ধ বা ভাতে দিতে হইলে, তাহার শাদা এবং লাল থোসা ছাড়াইয়া তবে দিবে। তার পরে সিদ্ধ হইলে মুন, তেল মাখিয়া থাইবে । ১১৮ ! ওলের ভর্তা । উপকরণ –ওল এক পোয়, সরিষা আধ তোলাটাক, শুক্ল লঙ্কা তিনটা, সরিষা তেল এক কাচ্চা, মুন আধ তোলা, একটি বসাল পাতিনেবু বা কাগঞ্জিনেবু । প্রণালী –ওলের খোসা ছাড়াইয়া, খণ্ড খণ্ড বানাইয়া জলে সিদ্ধ করিতে দাও ; সিদ্ধ হইলে নামাও ; প্রায় কুড়ি হইতে পচিশ মিনিট পর্যান্ত সময় লাগিবে । এখন অধি তোলাটাক সরিষা ও তিনটি শুক্লা লঙ্কা পিষিয়া লও ; ইহার উপরেই সিদ্ধ ওলগুলি রাখিয়া পেষ। ওল পেষা হইলে পর, একটি পাত্রে সব উঠাইয়া রাথ। এক কাচ্চা সরিষায় তেল ও অধিতোলা মুন মাখ। তার পরে, একটি বেশ রসাল নেবুর রস দিয়া মাখিয়া থাইতে দাও । ইহা দুদিন বেশ থাকে। ইহাতে তিন চার কোয় রমুন ও সিকি তোলা আদি পিষিয়া মাখিতেও পার । গুণাগুণ। —পূরণে দীপনো রুক্ষঃ কষায়ঃ কডুকৃৎ কটুঃ । বিষ্টন্তী বিশদে রুচ্য: কফ শুরুস্তনে লঘু । বিশেষাদর্শসে পথ্যঃ প্লীহা গুল্মবিনাশনঃ ।