পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/২৮২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


» ጓõ আমিষ ও নিরামিষ আহার। সৰ্ব্বেষাং কন্দশ কীনাং শূরণ: শ্রেষ্ঠ উচ্যতে । দদ্ধণাং রক্তপিত্তানাং কুষ্ঠানাং ন হিতো হি সঃ ॥ ( ভাব প্রকাশ । ) ওল দীপন, রুক্ষ, কষায়, কঙুজনক, কটু, বিষ্টস্তকারক, বিশদ, রুচিকর, লঘু কফম্বু, এবং প্লীহা ও গুল্ম রোগের বিনাশক । ইহা অর্শ রোগের প্রধান ঔষধ ও পথ্য। দক্র, রক্তপিত্ত ও কুণ্ঠরোগীর পক্ষে শুল হিতকর নয় । ১১৯ ! ও ল পে{ড়ী । প্রণালী –ওল মাটি দিয়া প্লেপিয়া পোড়াইবে, পরে তাহা সৈন্ধবকুণ ও তৈল সহ মাধিয়া খাইলে অশ রোগ ভাল ইয়। R ల ! মানকচু 受消立す 目 উপকরণ -মানকচু একপোরা, সরিষা বঁটি এক তোলা, সরিষা তেল এক র্কfচ্চ, কাচ লঙ্ক। ছুইটী, মুন প্রায় আধ তোলা, শুক্ল আমের গুড়া বা শুক্ল কুলের গুড়া সিকি তোলা । প্রণালী।--ভাল মানকচুর খোসা ছাড়াইয়া, চার পাঁচ ভাগে কাট ; সিদ্ধ করিতে দাও । সিদ্ধ হইতে প্রায় মিনিট কুড়ি সময় লাগিবে । তার পরে তাছার জল ঝরাইয়া চটকাইয়া লও। পরে র্কাচা লঙ্কা কুচি, সরিধা তেল, মুন, শুকুল অামের গুড়া বা কুলের গুড়া দিয়া মাথ । কেহ কেহ ইহাতে নেবুর রস মাখেন। ওলের ভৰ্ত্তার ন্যায় কচুর ভর্তা ও মাথিতে পার । ওল অথবা কচু থাইয়। জল থাইতে নাই-মুখ ধরে বা চুলকায়। মুখ ধরিলে, কোন প্রকার মন্ন খাইলেই সারিয়া যায় অথবা গুড়