পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/২৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


loyo দ্বাদশ আদিত কাছারা ? মহাভারতের আদি পূৰ্ব্বে স্পষ্টই লিখিত আছে “প্রজাপতি কশ্যপের ঔরসে ও দক্ষ কন্যা অদিতির গর্ভে স্বাদশ আদিত্য জন্মিয়াছেন । হে রাজন ! তাছাদের প্রত্যেকের নাম কীৰ্ত্তন করিতেছি যথা ;-ধাতা, মিত্র, অর্যাম, শক্র, বরুণ, অংশ, ভগ, বিবস্বান, পুষ, সবিতা, ত্বষ্ট ও বিষ্ণু । এই দ্বাদশ পুত্রের মধ্যে কনিষ্ঠ সৰ্ব্বাপেক্ষা গুণবান।” ঋগ্বেদের দেবগণের বিষয় এত স্পষ্টরূপে উল্লিখিত হইলেও আমরা কেন যে তাহা একবার চক্ষু মেলিয়া দেখি না ইহাই আশ্চর্য্য। দেবগণের মধ্যে বিষ্ণু “সৰ্ব্বাপেক্ষ গুণবান” বলিয়াই বিষ্ণু পরবর্তী কালে ঈশ্বরের অবতাররূপে কল্পিত হইয়াছেন ইহা বুঝা যায়। পূষা, শক্র প্রভৃতি অদিতিতনয় এই দ্বাদশ আদি দেবগণের স্তুতিতেই দেখা যায় ঋগ্বেদের অধিকাংশ ধ্বনিত। কোথাও বা বিবস্বান দেব তপনচ্ছটায় দীপ্তি পাইতেছেন, কোথাও বা বিশাল হৃদয় শুভ্রকাস্তি বরুণদেব সস্থাপহারী সলিলরাশির ন্যায় বিরাজ করিতেছেন, কোথাও বা বজ্রবিদ্যুদ্ধারী মহাশক্তিশালী শক্র দেবরাজ রূপে শোভা পাইতেছেন। ঋগ্বেদে এ সকলি বর্ণিত হইয়াছে । ঋষির ঋগ্বেদে দেবগণের উদ্দেশে শুদ্ধ ভক্তি পুষ্পাঞ্জলি স্বরূপে এই স্তবগুলি লিখিয়াই ক্ষান্ত হন নাই । তাহারা পূজ্যপাদ দেবতাদিগের উদ্দেশে তাহদের বুতাদি প্রিয় বস্তুও উৎসর্গ না করিয়! তৃপ্ত হইতেন না। লোকান্তরিত পূজ্য ব্যক্তির উদ্দেশে তদীয় প্রিয়বস্তু উৎসর্গ করা স্বাভাবিক, তাই দেবযুগের পরবর্তী কালে দেবভক্ত ঋষির অমরত্ব প্রাপ্ত দেবগণের প্রিয়বস্তু হবি প্রভৃতি উৎসর্গ না করিয়া থাকিতে পারেন নাই । ভক্তি পূৰ্ব্বক দেবতাদিগের উদেশে এই হবি প্রভৃতি উৎসর্গের নামই আমরা এক কথায় দেবপূজা বলিতে পারি। দেবভক্তির নামই দেব পুজা । দেব