পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/২৯২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


श्रांभिष ॐ निग्नfभेिद भांशद्र । والمراجاً শীঘ্ৰ কড়িয়া যায়, তাহা হইলেই ভাজায় উপরিভাগটা শীঘ্র লাগ হইয়া আসিবে অথচ ভিতরে কাচ থাকিবে । এই জন্য যে সকল জিনিষ খুৰ জলন্ত আঁচে ভাজিলে কাচ থাকিবার সম্ভব সে সকল জিনিষ যুদ্ধ মুছ জালে ভাজিলে, আস্তে মাস্তে উপর হইতে ভিতর পৰ্য্যস্ত সমস্ত সিদ্ধ হইয়া যাইবে । এস্থলে যদি উনানে খুব জলন্ত আঁচ দেখ বা তেল কড়া হইয়াছে দেখ, তাছা হইলে, উনানে একটু ছাই চাপা দিয়া ভাজিতে হইবে ; কিম্বা কড়া নামাইয়া নামাইয়া ভাজিলেও চলিতে পারে। উনানে চড়াইলে পর, যখন দেখিবে খুব ধোয়া উঠিতেছে, তখন উনান হইতে কড়া লামাইয়া ফেলিবে এবং যাহা ভাজিবার জন্য কড়ায় ছাড়া হইয়াছে তাহা খুস্তি দিয়া নাড়িয়া নাড়িয়া দিবে। জলন্ত ভাপট মরিয়া গেলে, আবার কড়া চড়াইল্প দিবে। ভোজন বিধি ।--সাদা ভাত, পাস্ত ভাত, ফেনসা ডাক্ত এবং কিছুড়িয় সঙ্গেই শাকসবজি ভাজি, বড়া, ফুলুরি, প্রভৃতি অধিকাংশ ভাজি খাওয়া যায় এবং কোপ্ত, চপ প্রভৃতি শাদা ভাত, খিচুড়ি ও পোলাওয়ের সঙ্গে সচরাচর থাইয়া থাকে। অনেক ভাজি স্থাছে যাহা ভাতেও খাওয়া যায় আবার লুচির সঙ্গেও খাওস ধায় ; যেমন আলু ভাজি, পটল ভাজি ইত্যাদি । অনেক ভাজিভূঞ্জি আবার মাংসের সঙ্গেও খাওয়া চলে ; যেমন কুর্কিট, হাল কাবাষের (ণ্ডাক রোষ্ট) সঙ্গে জালু ভাজি প্রভৃতি দেওয়া হয়। ফরেট, ফুলুরি, কোপ্ত ও চপ প্রভৃতি চা-পানেও বেশ চলিতে পারে । ভাজা জিনিশের অধিকাংশ গরম গরম থাইতেই মঞ্জ । ১৩৪ নারিকেল ভাজ । প্রণালী ।--একটি ঝুনা নারিকেলয় উপরিস্থ ছোবড় ছাড়াইয়া