পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৩০৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তৃতীয় অধ্যায়। & a $ ইহা গরম গরম খাইতেই ভাল লাগে। কেছ কেছ ইহাতে একটু মিষ্টি মিশাইরা মিঠা করিয়াও ভাজে। ১৫৬। চাল বাট দিয়া পাটশাক ভাজা । উপকরণ।-পাটশাকের পাতা পচিশট, চাল এক মুঠি, এক চুটকি হলুদ বঁটা, মুন দুই চিমটা, একটি কাচা আমের রস বা একটি নেবুর রস, তেল দেড় তোলা, মেতি স্থআনি পরিমাণ । প্রণালী।~ভাজিবার জন্য ভাল দেখির পাতা ছিড়িয়া লও, এবং ধুইয়া রাখ। চালগুলি বাছিয়া ধুইয়া, ভিজাইতে দাও। ভিজিলে পর শিলে মিহি করিয়া পিষিয়া, একটি বাটতে উঠাইয়া রাখ। আমিট ছেচিয় তাহার রস বাহির কর, অথবা নেবু থাকে তো নেবু নিংড়াইয়া রস বাহির কর। একটি কড়ায় তেল চড়াও ; মিনিট দুই পরে তেলেত্ব ধোয়া উঠিলে, মেতি ফোড়ন দাও ; মেতির পট, পট শব্দ থামিয়া গেলে পাটশাকগুলি ছাড় ; ভাজা ভাজা কর ; প্রায় মিনিট পাচ পরে পাটশাকগুলি মথন একেবারে কুঁচকাইয়া ভাজা ভাজা হইয়া আসিবে, তখন চাল বঁটাতে আমের বা নেবুর রস, মুন ও হলুদটুকু মিশাইয়া, সমস্ত পাটশাকের উপরে ছড়াইয়া দাও। নাড়া চাড়া করিয়া উণ্টাইয়া দাও, প্রায় তিন চার মিনিট পরে, বেশ ভাজা তাজা হইলে নামাও । ইহা থাইতে বেশ লাগে। ১৫৭। নাউখোলা ভাজা । উপকরণ।-নাউখোলা একপোর, শুকুালঙ্কা দুইট, তেল এক ছটাক, মুন সিকি তোলা । . প্রণালী ---কচি নাউএর খোলা ভাজা বেশ খাইতে লাগে। スや