পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৩২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8 অমিষ ও নিরামিষ আহার । ঘিয়ের একদিকে বেগুন আর এক দিকে আলু পাকাইতে থাক । আবগুক মতে খুন্তি দিয়া বেগুন, আলু উপ্টাইয়া পাণ্টাইয়া দিবে। মিনিট পাচের মধ্যে, বেগুন বেশ ভাজা হইয়া যাইবে -এমন কি, হাতা বা খুন্তি দিয়া ইহার উপরে টিপিলে মনে হইবে যেন বেশ খট্রখটে ভাজা হইয়াছে। তাঁর পরে উঠাইয়া রাখিবে। আলুগুলি মিনিট আটের পরে, তবে লালচে ভাজা হইয়া যাইবে । একটি বাসনে ভাজা পেঁয়াজ, আলু ও যেগুন সাজাইয়া দিবে। ভোজন বিধি।—ইহা ভাত, খিচুড়ি, এবং মুচিতেও থাইতে পার । ১৬৯ ৷ বে গুলের চাপ । উপকরণ --মাঝারি ধরণের চরিট বেগুন, বেশন এক ছটাক, শফেদা এক ছটাক, শুক্ল লঙ্কা দুইট, পটোল আটট, তেজপাত একথানি, জির সিকি তোলা, স্থআনি ভর গণম মশলার গুড়, কাচা লঙ্ক একট, একটি লেবুর রস,"খব তেঁতুল প্রভৃতি কোন অন্ন জিনিষের রস, মুন আধতোলা, ঘি এক পোয়া, জুল অাধপোয় । প্রণালী ।--কচি পটোল আটট একেবারে খোসা ছাড়াইয়া খুব সরু সরু করিয়া বানাও, ধুইয়া রাধ। শুরু লঙ্ক ছুটি বাটিয়া রাথ। জিরাগুলি কাঠখোলায়, ছুই তিন মিনিট চমকাইয়া, গুড়াইয়া রাখ। কাচা লঙ্কা কম্বুটি কুঁচাও ! নেবুর রস বাছির কর । একটি কড়াতে প্রায় এক ছটাক ঘি চড়াও এবং তেজপাতf