পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৩৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ఇనిy আমিষ ও নিরামিষ আহার । ১৯৭ । শাকেড়া । উপকরণ। —নটেশাক এক কাচ্চা, ময়দা এক চুটাক, বেশন এক ছটাক, ঘি আধ পোয়, কাচ লঙ্কা চারিটা, আদা অধিতোলা আস্ত জিরা দুয়ানি ভর, মুন দুই চুটকি, জল দেড় ছটাক । প্রণালী । — বেশ কচি দেখিয়া নটেশাকের গাছি বাছিয়া লইবে । প্রত্যেক গাছির অগিায় যে ঝাড়ের মত থাকিবে, সেই ঝাড়ের দিকটাই এক আঙ্গুল সমান লম্বা করিয়া কাটিয়া লওঁ । শাকগুলি ভাল করিয়া ধুইয়া লও, ধেন বালি ইত্যাদি না থাকে। ময়দাতে আধ কঁাচ্চা ধিয়ের ময়ান মাখ, তার পরে কাচ লঙ্কা কুচি, আদা কুচি এবং আস্ত জিরা মিশাও, তার পরে বেশন এবং জল মিশাইয়া ফেটাও । ভাজিবার ঠিক আগে মুন মিশাইয়া আবার একবার ফেটাইয়া লইবে । ঘি চড়াও ; দুই মিনিট পরে বিয়ের ধোয়া উঠিলে দু তিন গাছি শাক একত্রে ধরিয়া গোলাতে ডুবাও, আর ঘিয়ে ছাড় । BB BBS BBS BBB BBDBBS BBB BB BBS হইতে আড়াই মিনিট কি তিন মিনিট সময় লাগিবে। নরম তাঁচে ভাজিবে গরম গরম থাইতে দিবে। ১৯৮। পাকা কাটালের ভূতি ভাজা । উপকরণ –কাটালের ভূতি এক ছটাক ওজনের, শফেদা আধ ছটাক, বেশন আধ ছটাক, বঁটা হলুদ সিকিতোলা, শুক্লা লঙ্কা আধখানা, কাচা লঙ্কা তিনটা, কুন সিকি তোলা, ঘি বা তেল সাত কামচা, জল ঠিন নোট (প্রায় এক ছটাক)। প্রণালী {-কাটালের মধ্যে থোড়ের মত লম্বী যে মেরুদণ্ড থাকে, তাহাকে ভূতি বলে। ভূতির মুখে যেখান হইতে বোটা