পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৩৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(38 আমিষ ও নিরামিষ আহার । অর্থাৎ একটু সিদ্ধ মত করিয়া লও। মোচা কসটাইয়া ইহার জল যতটা পার বাহির করিয়া ফেল । হাড়িতে তিন কঁাচ্চ তেল চড়াও । তেলের ধেীয়া বাহির হইলে মোচা ছাড়। মিনিট সাত আট পরে যখন দেখিবে মোচ কুচকাইয়া ভাজ ভাজা হইয়। আসিয়াছে, তখন তেঁতুল দিতে হইবে । তেঁতুলের মাড়ি অর্থাৎ শাস বাহির করিয়া ছিবড় ফেলিয় তাহাতে একটি লঙ্কাৰ্বাট, হলুদবাটা, এবং আধছটাক জল মিশাইয়। তবে মোচাতে ঢালিয়। দিবে। এই সময়ে নুন ও দিবে। মিনিট তিন পরে জল মরিয়া গেলে নামাইরা একটি পাত্রে ঢালিয়া রাখ । আবার হাড়ি চড়াইয়া লঙ্কা ফোড়ন ছাড় ; লঙ্কার গন্ধ বাহির হইলে সরিষা ও তিন ফোড়ন মিশাইল্প ফোড়ন দাও । ফোড়নের চট্‌পট শব্ব থামিয়া গেলে মোচী ঢালিয়া সাতলাও । চার পাচ BB BDDD BBB BBS BB BB BB BBBS BBB BBBBS ফেলিবে । তার পরে জীরা ও তিন ফোড়ন কাঠখোলায় চমকাইয়া গুড়াইয়। ইহার উপরে ছড়াইয়া দাও, এবং আমআদা মিহি করিয়া বঁটিয়া মিশাইরা লও। ঢাকা দিয়া রাখ। ইহা বড় মুখরো.পূ । ২১১ । বেশন দিয়া ফুলকপি ভাজা । উপকরণ।--বেশন আধ ছটাক, শফেদা এক কাচ্চ, শুকু লঙ্কা গুড়া সিকি তোলা, তুন সিকি তোলা, জল প্রায় আধ ছটাক, তেল আধ পোয়tটাক, ফুলকপি তিন ডাল । প্রণালী ।--ফুলকপির ভিতরে পোকা ষেন না থাকে দেখিয়া লইবে । বেশ থেকে দেখিয়া তিন ডাল ফুলকপি লইয়া মধ্যে চিরিয়া ছয় ডাল কর ।