পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৩৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


o অমিষ ও নিরামিষ আহার । টুকু ও শুক্লালঙ্ক কুটিয়া ছানায় মাখ। পরে পুদিন পাতা কিম করিয়া দাও (পশ্লি, সেলেরি দিলেও বেশ হয় )। এবারে কুন মাখিয়া কাটলেটের মত গড়নে আধ বিঘৎ লম্বা করিয়া ছয়ট কাটলেট গড় । তৈয়ে ঘি চড়াও ; ঘিয়ের ধোয় উঠিলে দু তিন খানি করিয়া ছাড়। দুপিঠ বেশ গাঢ় ভামাটে রংএর হইয়া আলিলে নমাইবে। এক এক খোলা ভাজা হইতে ছ তিন মিনিট করিয়া লাগিবে। ইহা নরম আঁচে ভাজিতে হুইবে । ভোজনবিধি ।--ইহা মাংসের কাটলেটের পরিবর্তে অনায়াসে চলিয়t যাইতে পারে। খাইতে বড় চমৎকার হয়। ভাতের সময়, চা পানে, এবং লুচিতে দিতে পারা যায়। নিরামিষ ভোজীদের পক্ষে ইহা অতি সুখাদ্য । ইহাতে পেয়াজটুকু বাদ দিয়া আদি দিলেও চলে । ২৩৩ । নলিতে ভাঞ্জা ৷ প্রণালী —আগুণের উপর তাওয়; রাখিয়া তfহাতে নাতে শাকগুল নাড়াচাড়া করিয়া নামাও । এই রকম BB BBBB BBBBB BBBDD K BBS BBS BBBB হাতে করিয়া গুড়াইয়া রাখ। এক গ্রাস ভাতে তিন চার ফোটা গাওয়া ঘি মাখিয় তাহার উপরে দুই চুটকি নালতে গুড়া মাখিয়া ভাত খাইবার অাগেই ইছা থাইতে হয়। বহুদিনের অজীর্ণ রোগ আরাম হয়।