পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৩৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আমিষ ও নিরামিষ আহার । ড়িতে ঢালিয়া দাও । জল বরিয়া যাক। হাত দিয়া নিংড়াইয়া যতটা পার জল গালিয়া ফেল । - কড়ায় তেল চড়াইয়া, মিনিট দুই পরে তাহাতে লঙ্ক ফেড়েন দাও। একটু পরেই পাঁচ ফোড়ন ছাড়িয়া তার পরে সরিষা ফোড়ন ছাড়। ক্ষোড়ন চুড় চুড় করিয়া থামিলেই শাক ছাড়। নাড়িয়া চাড়িয়া প্রায় মিনিট চার পরে সরিষা বাট দাও । খুন্তিদিয়৷ ছু একবার নাড়িয়া তখনি নামাইয়া রাখ। ২৩৬ । মূলাশাকের ছেচকী । (দ্বিতীয় প্রকার ।) উপকরণ।—মূলাশাক এক ছটাক, জল এক পোৱা, শুক্ল লঙ্ক দুইট, সরিষা দুয়ানি ভর, সরিষা বঁটা প্রায় আধ তোল, তেল আধ ছটাক, মুন সিকি তোলা। প্রণালী।—মূলাশাকগুলি কুচি কুচি করিয়া বানাইয়া জলে সিদ্ধ করিতে চড়াও । প্রায় মিনিট পনের সিদ্ধ হইলে পর জল গালিয়। ফেল । কড়ায় তেল চড়াও ; তেলে একটি শুক্লা লঙ্কা ফোড়ন দিয়া তার পরে সরিষা ফোড়ন ছড়ি । ফোড়ন হুইয়া আসিলে অর্থাৎ ফোড়নগুলি চুড় চুড় করিয়া থামিয়া গেলে, শাকগুলি ছাড়িবে ও এই সময় জুন দিবে। তেলে শাকে বেশ মিশাইয়া গেলে কড়া নামাইয়া বঁটি সরিষাটুকু ও একটি লঙ্কা বাট মাখ। ২৩৭। লাউয়ের ক্ষার ছেচকী । উপকরণ -লাউ জাধ পোয়, তেল দেড় কাচ্চ, জুন প্রায়