পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৩৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুৰ্থ অধ্যায়। ← br$ বানাইয় দেওয়া হয়, ইহার একটা বিশেষ কোন নিয়ম নাই । তবে মোটামুটি রকমে শাক সবজি বানাইবার কতকটা নিরম বলা ঘাইতে পারে । আলু প্রায়ই বড় হইলে ছয় চির কি আট চির করিয়া বানান হয়। ছোট হইলে চার চির । যখন আবার নূতন আলু উঠে তখন দেই অতি ছোট ছোট আলুগুলি খোসা সমেত হইলে আস্তই দেওয়া হয়, আর অপেক্ষাকৃত বড় হইলে চার চির বা অৰ্দ্ধেক করিয়া কাটা হয় । পুরান আলুর খোসা ছাড়াইতে হয় । নূতন আলুর খোসা কখনো বা চটে বসিয়া উঠাইয়া দিয়া থাকে বা অনেক সময়ে থেfস সমে তই রাধা হয় । BBB BK BBBBS BB BB BB B BB BBBS করিয়া বানাইতে হয় । পটেলের বাধাইয়া খোসা কাটিতে হইবে । মধ্যে মধ্যে থেীসা রাখিয়া অল্প অল্প খোসা ছাড়ানকে “বাধাইয়া ছাড়ান” বলে । পটোল প্রায়ই চারখানা কি ছয়খানা করিয়া বানান হয় । থোড়ের খোলা ছাড়াইয় চাকা কাটিতে হইবে, আর সঙ্গে সঙ্গে ইহার যে শুয়া বাহির হইবে তাহ আঙ্গুলে জড়াইয়া যাইতে হইবে । তার পরে এই চাকাগুলি একত্র করিয়া চারখানা করিয়া অর্থাৎ চার ভাগে কাটতে হইবে। যদি মোটা থোড় হয় তাহা হইলে চাকাগুলি ছয় থানা করিয়া অর্থাৎ ছয় ভাগে কাটিয়া বানাইতে হইবে । প্রায় সমস্ত চড়চড়িতেই থোড়ে মুন মাখিয়া রাখিতে হইবে । সাতলাইবার আগে থোড়ের জল নিংড়াইয়ী লইতে হইবে । চড়চড়িতে বড় বেগুন বার বা ষোল টুকরা করির ডুম ডুমা আকারে বানান হয় । ডাটা আস্থলের সমান লম্বা করিয়া কাটিয়া দিতে হয়। আর જદું o