পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৩৯৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


5छ्रं स्र६ांश्च । ミ切? তয়কারী একেবারে গলিয়া যাইতে পারে, আবার কম জল দিলে তরকারী শক্ত থাকিবে, ভাল সিদ্ধ হইবে না । কচি তরকারীতে কম জল লাগে, আর পাক তরকারী সিদ্ধ করিতে অধিক ছাচনার অবশ্যক । আঁচ।-চড়চুড়ি রবিবার সময় একটু জাল বেশী থাকিলে হানি হয় না বরং শীঘ্ৰ সিদ্ধ হইয়া যায়। তবে কোন কোন চড়চড়িতে আবার মনা আঁচও চাহি । ভোজন বিধি –প্রধানতঃ ডাল ভাতে, ঘি-মাখ ভাতেই চড়চড়ি খাইতে ভাল। তবে খিচুড়ির সহিতও চলিতে পারে। পোস্ত চড়চড়ি, ভাজা চড়চড়ি, লtউশাকের চড়চড়ি, উচ্ছে চড়চড়ি ইত্যাদি কতকগুলি চড়চড়ি পান্ত ভাতের সহিত থাইতে ভাল লাগে । ২৫৭ । ফুলকপির চড়চড়ি । উপকরণ।-আলু আধ পোয়, ফুলকপি আধ পোম, শিম এক ছটাক, ছাড়ান কলাইগুটি এক ছটাক, বিটপলিম বা রাঙ্গ মোথ৷ একট, কচি থোড় আধ পোয়, কুমড়াবড়ি দশটা, সরিষা তেল দেড় ছটাক, কঁচালঙ্ক তিনটা, শুক্লালঙ্ক তিনটী, তিন ফোড়ন সিকিতোলা, তেজপাত দুইখানা, জল এক পোয়া, হলুদ সিকিতেলি (একগির) সরিষা মিকি তোলা, মুন একতোলা, জ্বল এক পেীয়া । প্রণালী –আলুয় খোসা ছাড়াইয় তাহাকে চার ভাগে বা ছয় ভাগে কাটিবে ; ফুলকপি ডালে ডালে কাটিয়া লইবে ; শিমের বোটা কাটিয়া ফেলিয়; দু তিন টুকরা ক্ষরিয়া কাটবে। বিটের ধোঁধা ছাড়াইয়া ডুম ডুমা করিয়া কাট। থোড় চাকা করিয়া