পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৩৯৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুর্থ অধ্যায়। 畿赢@ कांद्रौञ्च ब्रः धरुहूँ लांबांड श्हेग्राcछ्, ठश्वन उब्रकांग्रेौ फै#ाहेब्रां রাথিবে। ইহাই তরকারী কসা হইল । কড়ায় জাবার এক ছটাক তেল চড়াও । তেলে তেজপাত। চুখান, পাচ ক্ষোড়ন এবং একটা শুক্লালঙ্ক ছিড়িয়া ফোড়ন দাও । ফোড়নের বেশ গন্ধ বাহির হইলে তরকারী ছাড় । একবার খুস্তিদিয়া নাড়িয়া লইয়া দেড় পোয় জলে হলুদ ও লঙ্কার বাটন গুলিয়া ঢালিয়া দাও । জুন দাও । মিনিট পাঁচ ছয় ফুটিলে পয় যখন দেখিবে আলু সিদ্ধ হইয়া গিয়াছে, এবং জল ও অনেকটা মরিয়া গিয়াছে তখন বড়াগুলি ঢালিয়া দিবে। সবটা ভাল করিয়া নাড়িয়া দাও । ফু এক মিনিট পরেই জল শুকাইয়া গেলেই লামাইবে । ভোজন বিধি।-ইহা লুচির সঙ্গে এবং ভাতের সঙ্গে খাওয়া চলে। ২৬৩ । টক চড়চড়ি । উপকরণ –এক ফালি লাল কুমড়া (আধ পোয়), শাদাশিম এক ছটাক, আলু তিন ছটাক, কাচ আমি একট, পেয়াজ আধ ছটাক, হলুদ বাটা আধ তোলা, শুক্লা লঙ্ক দুইটি, কাচা লঙ্কা দুইটি, তিন ফোড়ন চুয়ানি ভর, তেজপাতা একখানা, জল এক পোয়া, ভেল এক ছটাক, মুন প্রাপ্ত পোন তোলা । প্রণালী।-লালকুমড়া ছোট পাশার আকারে ৰানাও । চড়চড়ি রাধিবার সময় কুমড়ার খোলা রাখিতেও পার, আৰার ছাড়াইম্বা ফেলিতেও পার। শিমের বোট ও শিরটা ছাড়াইয়া তিন চার টুকরা করিয়া কাট। আলু চারখানা কি ছয়খান করিয়া বানাও। পেয়াজ লম্ব দিকে কুচি কর। কাচা আম পেয়াজের মত কুচি কুচি করিয়া কাট।