পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৪১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুর্থ অধ্যায়। vo : ফোড়ন ছাড়িয়া মশলার বঁাটনা ছাড় এবং কসিতে থাক। প্রায় মিনিট তিন পরে মশলার জল মরিয়া গিয়া তেলের বুদবুদ উঠিতে থাকিলে, শাক সমেত সব তরকারী ছাড়। তিন চার মিনিট ধরিয়া তরকারী কসা হইলে পর, যখন দেখিবে তরকারীতে মশলা বেশ মাখিয়া গিয়াছে, তখন দেড়পোয় জল দিয়া হন দিবে। প্রায় মিনিটদশ পরে জল মরিয়া গেলে নামাইয়া, আদাবাটাটুকু মাখিয়া লইবে। ২৭৯ । পুইশাকের চড়চড়ি । উপকরণ।—পুইশাকের ডাটা প্রায় দুই হাত লম্বী, আলু আধ পোয়া, থোড় আধ পোয়া, মূল বড় হইলে আধথান ছোট হইলে দুইট, বড় বেগুন একট, লাল কুমড়া এক ছটাক, ফুলবড়ি সাত আটটা, চুন প্রায় এক তোলা, সরিষা আধ তোলা, তিনটী শুক্লা লঙ্কা, আদা আধ গিরা, পেয়াজ এক ছটাক, পাচফোড়ন সিকি তোলা, তেজপাত দুইখানা, তেল দেড় ছটাক, জল পাচ ছটাক, রমুল দু তিন কোয় । প্রণালী।—আলুর খোসা ছাড়াইয় প্রত্যেকটাকে ছয় বা আট খণ্ডে কাট। থোড়ের খোসা ছাড়াইয়৷ চাকা কাটিয়া আবার প্রত্যেক চাকাকে চার খণ্ডে কাট। কুমড়া ডুমা করিয়া বানাও। ডাটা এক এক আঙ্গুল সমান লম্ব করিয়া বানাইয়া প্রত্যেকটার আঁশ ছাড়াও চারটে কচি কচি পুইপাতাও দিও। সব ধুইয়া রাখ। সরিষা, হলুদ, দুটি শুক্লালঙ্কা, আদাও তিন কঁাচ্চ পেঁয়াজ শিলে পিষিয়া বুখি । 'এক কাচ্চ পেয়াজ কুঁচাইয়া রাখ।