পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৪১৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পঞ্চম অধ্যায় । ঘণ্ট । প্রয়োজনীয় কথা । ঘণ্ট —আমাদের বাঙ্গলা খাবারে চড়চড়ির পরে ঘণ্ট দিয়া থালা সাজাইতে হয় । ঘণ্ট রান্নাটা থকথকে রকমের হইয়া থাকে । ঘণ্ট পাকা সবজি অপেক্ষা কচি সবজিরই ভাল হয় । আলু, পটোল, কপি প্রভৃতি তরকারীর এবং নানাবিধ শাকের সচরাচর ঘণ্ট হইয়া থাকে। বড়ি, নারিকেল কোরা, ভিজা ছোলা এইগুলি ঘণ্টে প্রায়ই ব্যবহৃত হর । ঘণ্ট তেল অপেক্ষ বিয়েতেই ভাল হয় । সবজি বানান –ঘণ্টের জন্য যাহা কিছু শাক সবজি লইবে, প্রায় কুচি কুচি করিয়া বানাইতে হইবে । দু একটা ঘণ্টতে আবার ছোট ছোট ডুমা আকারে তরকারী বানাইয়া দেওয়া হয়। মশলা –প্রায় সকল ঘণ্টের জন্যই ধনে বঁটা, ও জার মরিচর্বাট আবশুক। কোন কোন ঘণ্টে ইহা ছাড়া শুক্ল লঙ্কা বাট, হলুদ বাট, তিল বাটাও দেওয়া যায়। গঞ্জ মশলা বাটাও কোন কোন ঘণ্টে দিতে হয় । বাদাম, কিসমিস, গরম মশলা, দুধ চিনি এগুলিও ঘন্টের উপকরণ । ফোড়ন –জীরা, হিং, তেজপাতা, কাচা লঙ্কা এইগুলি ঘন্টের ফোড়ন রূপে ব্যবহৃত হয়। দু একটা ঘণ্টে রাধুনিও লাগে । - রাধিবার প্রণালী।--ঘণ্টের তরকারী প্রায়ই সিদ্ধ করিয়া জল 3