পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৪৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩২৮ আমিষ ও নিরামিষ অtহার । জারে তিন চার মিনিট পরে দুধে তিল বঁটা ও চিনি গুলিয়া ঢালিয়া দিবে। তিন চার বার নাড়িয়া দিয়া ময়দা আধ ছটাক জলে গুলিয়া ঢালিয়া দাও । হু এক মিনিট নাড়িয়া নামাও । উপরে নারিকেল কোর ও বড়ি ভাজা হাঁতে করিয়া গুড়াইয়া ছড়াইয়া দাও । ২৯৭ । কচুশাকের মালাই ঘণ্ট । উপকরণ –কচু ডাটি আড়াই পোয়ী, সরিষা এক তোলা, রাধুনি পিকি তোলা, জীরামরিচ সিকি তোলা, শুক্লালঙ্ক তিনটা, হলুদ দুই গিরা (জীধ তোলা), রসুন তিন কোয়া, (সরিষা হইতে রক্ষন পৰ্য্যন্ত মসলা গুলি একত্র মিশাইয়া দেখিবে অাধছটাক হইয়াছে কিনা। এই সব মিলাইয়া আধছটাক মসলা ইহাতে লাগিবে।) পেয়াহু আধ ছটাক, তেল এক ছটাক, নারিকেল কোরা আধপোয়া, জল দেড় পোয়া, মুন আধ তোলা, কঁাচালঙ্কা छांद्रिप्ले । প্রণালী।-কচু উঁটিগুলি এক আঙ্গুলসমান লম্বা করিয়৷ কাট। প্রত্যেকটার আঁশ ছাড়াইয়! আবার লম্বা দিকে ছু ক্তিন কালি করিয়া কাটিয়া দাও, তাহা হইলে ভাল করিয়া সিদ্ধ হইবে । ধুইয়া রাখ । সরিষা, রাধুনি, জীরামরিচ, শুকুলঙ্কা, হলুদ, রসুন, পেয়াজ সব একত্রে পিষিয়া রাখ। কঁচিালঙ্কা কয়ট পিষিয়া স্নাথ । এক ছটাক জল গরম কর। কোর নারিকেল এই গরম জলের সহিত মিশাও। একটি কাপড়ে ছাকিস্থা নারিকেলের দুধ বাহির কর । - এক পোৱা জল দিয়া কচু উঁtটগুলি সিদ্ধ করিতে চড়াইয়া