পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/৪৭০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


意が&3 আমিষ ও নিরামিষ আহার । ইহাতে অনেক দিন থাকিবে পচিয়া ষাইবে না । গুকু জায়গায় রাখিলে কুমড়া শীঘ্র খারাপ হইয়া যায় না । কচি কুমড়া আনিলে অধিক দিন থাকে না । ৩৩৬ । কঁাটালবীচি রাখিবার উপায় । প্রণালী।--লে ও কঁাটালের কোয়ার ভিতর হইতে বচিগুলি বাহির করিয়া ফেল। বীচিগুলি ভাল করিয়া ধুইয়া তার পরে রেীদ্রে দাও । সমস্ত দিন ভাল করিয়া রৌদ্র পাইলে পর ছড়াইয় ঠ গু করিতে দিবে। পর দিন যতগুলি কাটালবীচি তাহার দ্বিগুণ বালি আনিয়া বালির সহিত মিশাইবে। এবং একটি কলসীর ভিতরে পুরিয়া রাখিবে । কলসীর মুখ ঢাকিবীর আর অবিশুক নাই, মুখ খোলা রাখিবে । কলসীর মুখ পৰ্য্যন্ত যেন বালিভরা থাকে। ইহাতে কাটাল বীচি অনেক দিন পর্য্যস্ত ভাল থাকিবে । ৩৩৭। পাচ ফোঁড়ন ও তিন ফোঁড়ন । প্রণালী –জীর, মেতি, কালজীর, জোয়ান, রানি ও মেীরী শুক্লালঙ্কার বীচি এই সকল উপকরণ মিশাইয়। সচরাচর পাচফোড়ন প্রস্তুত করা হয়। ডালনা, কি বিশেষ পক্ষে চড়চড়িতে এই পাচ ফোড়ন দিলে মন্দু হর না। কিন্তু অস্বল, ঘণ্ট কি আমষোল প্রভৃতিতে এই পাঁচ ফোড়ন দিলে তাহায় ভাল আস্বাদ হর না। অম্বল প্রভৃতিতে তিন ফোড়ন দিলে তবে তাহার আস্বাদ ভাল হয়। এই তিন ফোড়ন অস্বলে কি যে কোন তরকারীতে ফোড়ন দিলে ইহার একটু স্বতন্ত্র রকম সুবাস বাহির হইবে। আবার এই তিন ধেীড়ন চমকাইয়। আধ-গুড়া করিয়া কোন