পাতা:আরোগ্য - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/১৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কানু বলে, আহা, ওটুকু আমিও বলতে পারতাম। মুখচোখ ভাল না, রঙটাও সুবিধের নয়। কিন্তু মাইরি, কি গান গায়। আমি ক’দিন কটা মিটিং-এ গান শুনেছি। মনে হয়েছে, এরকম না হলে মেয়ে ? কি ছাই একটা বেলাকে পচ্ছন্দ করেছি, বড় ছোট নজর তো আমার । কানু হাসে -সর্বদা গান শুনছিস, রোজ মেলামেশা চলছেযোয়ান মন্দ মানুষ তুই। মাঝে মাঝে ওর সঙ্গে পীরিতের স্বপ্ন দেখবি ना। डूछे कि ७कालद ? ঃ স্বপ্ন দেখে লাভ ? : লোকসানের হিসেব কষে লোকে স্বপ্ন দ্যাখে নাকি ? যে, স্বপ্ন দেখতে সাধ যায় সেটাই দ্যাখে।

জানিস না বুঝিস না বিদ্যা ফলাস না বেশী। ভয়ের স্বপ্ন দেখিস নি কখনো ? স্বপ্ন দেখে ঘেমে টেমে ঘুম ভাঙ্গেনি ? খানিক্ষণ বুক ধড়পড় করেনি ?
সে তো আলাদা স্বপ্ন। আমি মজাদার স্বপ্নের কথা বলছি। পেট গরম না হলে কেউ কখনো ভয়টিয়ের বিশ্ৰী স্বপ্ন দৃষ্ঠাখে ? পেট গরম श्७भी कि दादों यgश्रद्ध 0ांस ?

কতকাল ডাক্তার দত্তের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে আসছে, সদ্য শুনে এসেছে তার ব্যাধি থেকে সুরু করে তার প্ৰেম আর আসল ব্যাখ্যা, কেশব সবজান্তার মত হাসে । বলে, না ভাই, জ্ঞানবিজ্ঞানকে উড়িয়ে দেয়া যায় না। আমাকে তাজব বানিয়ে দিয়েছেন। আমার মনের ভেতরের খবর আমার জানা নেই, উনি ঠিক ঠিক সব বাৎলে দিলেন। আমার শরীরে কোন রোগ নেই। এ তো আগের ডাক্তার বলেছিল। রোগ যে মনের, শরীরে যা হয় সেটা মনের থেকে হয়, এটা ধরতে পারিনি। ইনি । రి