পাতা:আরোগ্য - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/১৭০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তার কঠিন অসুখ । চিকিৎসা চালিয়ে তার আরোগ্য লাভ সম্ভব। হ’লেও দেশের অবস্থা না বদলালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা সম্ভব নয় ! তার নিজের অসুখ, আর দেশের অবস্থার যোগাযোগের কথাই সে বলে এসেছে, এইবার বোধ হয় সে প্রথম উল্লেখ করল দেশের লোকের বিনা চিকিৎসায় মরার কথা । কথা এড়িয়ে যেতে চায় ললনা । সবার ছকে আঁটি। বক্তৃতা করার কায়দায় তার প্রশ্নকে এড়িয়ে যেতে চায় ! কেশব তাই কড়া সুরে প্রশ্ন করে, বাজে খরচ একটু কমিয়ে, সন্ত।

  • ापुछा °Cद्र

পরনের সেকেলে দামি শাড়ীটার দিকে চেয়ে ললনা হাসে । ঃ এটা আমার মার শাড়ী ৷ পযসা দিযে কিনি নি । এমন এশ ড: কেনার পয়সা কোথায় পাব ! কেশব হতভাম্বের মত চেয়ে থাকে । তার মায়ের শাড়ীটার দিকে তাকাচ্ছে না। স্থানে স্থানে পোকা: কাটা শাড়ী জড়ানো তার দেহটার দিকে তাকাচ্ছে বুঝতে না পেরে व्ऴ ७ (८८ । । বলে, সস্তা শাড়ী পরে সিনেমা ষ্টুডিওতে আসা যায় না, এটুকু সহজ বুদ্ধিও আপনার মগজে গজায় না ! এদের দেওয়া সোনা রূপার জড়ি বসানো হাজার টাকার শাড়ী পরে ষ্টুডিওতে এলে বুঝি খুন্সী হতেন ! তাহলে কিন্তু আপনাকে পৌছে দেবার জন্য তোষামোদ করতাম না-এদের গাড়ী আমায় নিয়ে আসত। কেশব টের পায়, ললনা তার সঙ্গে লড়াই করছে । এতক্ষণ সাফাই গেয়েছিল । এবার তাকে আক্রমণ করেছে । বিড়ির কোটায় দুটো আস্ত সিগারেট ছিল, একটা সিগারেট ধরিয়ে Y Wig:Rage