পাতা:আরোগ্য - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/১৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


: शे-ट्रेनि••• ? झे-छ्रेनि · · · ? লালন বলে, ইনি "আমার বন্ধু। সে বোধ হয়। ভদ্রতার হাসি হাসবার চেষ্টা করে। হাতের আঙ্গুল থেকে গরীবের প্রত্যেকটি অঙ্গ-প্ৰত্যঙ্গের বিরামহীন নড়ন-চড়ানে যেন নতুন একটা বিশৃঙ্খলা, নতুন একটা অসামঞ্জস্য সংঘটিত হয় । তোতলিয়ে তো তলিযে কতগুলি ভাঙ্গা শব্দ ও সে উচ্চারণ করে । কথা গুলির মানে কেশব বুঝতে পারে। ভেতরে যাবার জন্য তাকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে । তফাতে সরে মুখোমুখি দাড়িয়ে তারা এতক্ষণ কথা বলছে, তাকে বাদ দিযে। "একলা ললনাকে ডাকবার সাহস ষ্টুডিওর কৰ্ত্তাদের নেই। ললনা তযতো রেগে যাবে, হয় তো বৰ্জন করবে। ষ্টডিওর সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক । ঝাল মশলা হিসাবে ললনাদের খানিক খানিক না মিশিযে শুধু পেশাদাৰ’ ষ্টারদের দিয়ে আর জমানো যাচ্ছে না। জনসাধারণের পয়সায় সিনেমার আসর। ললনার মুখের দিকে একনজর তাকিয়ে কেশব একটু হেসে মাথা নেড়ে গেটের দিকে চলতে সুরু করে । 66.3 মনের দুটাে জগৎ ওলট পালট হয়ে গেল। কিন্তু যন্ত্রণা কই ? বরং দেহ মন যেন শান্ত হযে গেছে তার । সুন্দর হোক কুৎসিৎ হোক সত্যের সন্ধান পেয়ে যেন তার পরম মুক্তি জুটেছে। মায়ার ওপর ললনার ওপর বিতৃষ্ণা আরও আগুনের মত জ্বলে ওঠার বদলে যত বিরাগ আর বিতৃষ্ণা ছিল সব নিভে গিয়ে মমতা বেড়েছে । নিজের মনে সত্যই কেশ তাজব বনে যায় । So