পাতা:আরোগ্য - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


করতে হবে দু’দিন পরে। দিনরাত পড়েও ফেল করেছে। দু'বার। শতকরা সত্তর জন ফেল করাদের দলটাকে সে ছাড়িয়ে উঠবে। সে আশা কেউ রাখে না । ভোরবেলা হঠাৎ গোবিন্দ আসে। কেশবকে দেখে বলে, তুমিবেরোও নি এখনো ? ভালই হয়েছে । আমি ভাবছিলাম, প্ৰণবকেই জানিয়ে যাব। কথাটা, তোমার সঙ্গে পরে আলোচনা হবে । গোবিন্দ মাদুরে জাকিয়ে বসে। প্ৰণব এলে দু’ভাইকে তার दड़दJ खन्श् ि। অবিলম্বে সে রঞ্জনের বিয়ে দেবে ঠিক করে ফেলেছে। ভেবেচিন্তে ওটাও ঠিক করেছে যে তারা যদি সম্মত হয় সে আর মেয়ে খোঁজাখুঁজি করবে না, মিনুর সঙ্গেই ছেলের বিয়ে দেবে। ঃ বয়সে বেমানান হবে না । তবে মিনুর বাড়ন্ত গড়ন, রঞ্জন আর. একটু লম্বা চওড়া হলেই অবশ্য মানাত ভাল। সেজন্য আসবে যাবে না। কেশব চমৎকৃত হয়ে বলে, হঠাৎ বিয়ে ঠিক করলেন কেন ? ; খুলেই বলি তোমাদের। এবারও ফেল করে দুদিন একটু মুষড়ে গিয়েছিল, তারপর হঠাৎ দেখি দিব্যি তাজা ভাব । ৰললে, ব্যাপার কি জানো ? আমাদের ইচ্ছে করে ফেল করিয়েছে, ইংরাজীতে কড়া হাতে নম্বর কেটেছে। পাশ করলে চাকরি দিতে হবে, তাই । গায়ের জোরে বেশী বেশী ফেল করিয়েছে, তারপর শুনলাম কি সব আন্দোলনে যোগ দিয়েছে, পলিটিকস করছে। তা করুক, তাতে কোন আপত্তি নেই । আখেরে হয় তো ভালই হবে । কিন্তু একে আনাড়ি তায় গায়ের জালা, গোড়ায় বেসামাল হয়ে পড়বে। उांश् डांदलाभ दिल्म डांफ़्रांडांद्धि निष्म गिरे, गादे कक्रक (यक अभgल कदूgद ।