পাতা:আরোগ্য - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৮৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কেশব বলে, মিনুর সঙ্গে হয়না গোবিন্দদা । ঃ কেন ? বাধা কি ? : এক যায়গায় কথাবাৰ্ত্ত প্ৰায় পাকা হয়ে গেছে; তাতে কি? সব পাকা হবার পর সম্বন্ধ ভাঙ্গে না ? কেশব আমতা আমতা করে বলে, তাছাড়া, একেবারে পাশাপাশি दांएँी, डाभांश cकभन्न डांल व्लांटछ न। । গোবিন্দ গম্ভীর মুখে বলে, এই তো ভাল। তোমরাও ছেলের বিষয় সব ভালভাবে জানো, আমরাও মেয়েকে ভাল করে জানি । তাছাড়া ওই ছেলেটির চেয়ে আমাদের রঞ্জন নিশ্চয় পাত্র হিসাবে অনেক ভাল ? প্ৰণব বলে, তুমি আপত্তি করছ, কেন ? গোবিন্দদ মিনুকে নেবেন এতো আমাদের ভাগ্যের কথা । গোবিন্দ উঠে দাড়ায় । ঃ তোমরা কথাবাৰ্ত্তা বল। কালপরশু আমায় জানালেই হবে । এখানে দেন পাওনা যা ঠিক হয়েছে তার বেশী আমি কিছুই চাইব না। গোবিন্দ চলে গেলে প্ৰণব মাকে ডাকে । সুতরাং আদরিণী এবং পিসীরাও আসে। সেদিনের চেয়েও জোরালো সংঘাত বেধে যায় ‘কেশবের সঙ্গে বাড়ীর সকলের । বাজে একটা এপ্ৰেন্টিস ছেলের বদলে রঞ্জনের সঙ্গে মিনুর বিয়ে হবে শুনেই সকলে যেন হাতে স্বৰ্গ পেয়েছে মনে হয় ! কেশবের যুক্তিহীন অর্থহীন অসম্মতির মানেই কেউ বুঝতে পারে 本 1 মা বলে, একি একগুয়েমি তোর, এ্যা ? তুই কি পণ করেছিস আমরা সবাই যা বলব সেটাই তুই ভেস্তে দিবি, ঠিক উল্টোটা গাইবি ? PO