পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (চতুর্থ বর্ষ).pdf/১৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


জ্যৈষ্ঠ, ১৩২০ ৷৷ नि-0ोंडिलान । S( ) হইতে লাগিল। পরাজিত দেশবাসীরা যুদ্ধ ত্যাগ করিল। সোরাব তাহা পারিল না, সে লোকালয়ের মমতা পরিত্যাগ করিয়া ভীষণ অরণ্যে স্বাধীন সিংহের মত বিচরণ শ্ৰেয়ঃ বিবেচনা করিল। কিছুদিন পরে সোরাব বন্দী হইয়া তাতার সেনাপতির সম্মুখে নীতি হইল। কারাদণ্ড অপেক্ষা মৃত্যু সোরাবের নিকট অধিক গৌরীব-জনক বোধ হইল। সোরাব শৃঙ্খলিত হষ্টিয়া কারাগারে বন্ধ হ'ল। প্ৰাণদণ্ডাজ্ঞ --- সোরাবের বিচারফল নিৰ্দ্ধারিত হইল । 钵 米 እ፪፥ 本 米 , ঘনান্ধকার রাত্রি-বর্ষণক্লািস্ত, স্তব্ধ। মেঘমালা আকাশের চতুর্দিকে ইতস্ততঃ বিচরণ করিতেছিল। মধ্যে মধ্যে মেঘে বিদ্যুতস্ফুরণ হইতেছিল। সোরাব কারাগারের গবাক্ষ-পাশ্বে দাড়াইয়া আকাশের অবস্থা দেখিতেছিল ; আর ভাবিতেছিল-নিজের অদৃষ্টের কথা । মৃত্যুর জন্য সোরাব ভীত নহে ; কিন্তু সে যে পিতার আদেশ পালন করিতে পারিল না, সে জন্য সে দুঃখিত। আর মিশরী-তাহার হৃদয়ের অধীশ্বরী না জানি সে কেমনে আছে ! সোরাব প্ৰকৃতির অবস্থার সঙ্গে আপনার অদৃষ্ট্রের তুলনা করিতেছিল। আজ প্রকৃতির এই ভীষণ অবস্থা, কিন্তু কাল হয় ত মেঘমুক্ত গগনে দিবালোকবিকাশ হইবে। সোরাবের মনে হইল, সে যদি কোন প্রকারে আজ মুক্ত হইতে পারিত হয় তা সে চেষ্টা করিলে পিতার আদেশ পালন করিতে পারিত-হয় ত মিশরের সুখস্থৰ্য্য আবার উদিত হইত। হায় ! মৃত্যুপময়েও লোক আশার বশীভূত হয় ! নৃত্যু ত সোরাবের কণ্ঠালগ্নই রহিয়াছে। এমন সময় কে আসিয়া কারাগারের দ্বার যুক্ত করিল। সোরাব মনে করিল, বুঝি ঘাতুক আসিল, কিন্তু সে বিদ্যুতস্ফুরণের ক্ষণস্থায়ী আলোকে 6ाषेित्र, बा, ५यकछन भश्विगा ! মহিলা তাহার নিকটবৰ্ত্তী হইয়া ধীর স্বরে বলিল,-“সোরাব তুমি মুক্ত হইলে কি করা ?” সোরাব দৃঢ় কণ্ঠে উত্তর করিল,-“পুনরায় তাতার দসু্যর সঙ্গে যুদ্ধ করি।” রমণী ধীর স্বরে উত্তর করিল,-“আমার সঙ্গে আইসি। যদি মুক্তি চাহ, क्षि कद्भि७ ब ।।” O