পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (চতুর্থ বর্ষ).pdf/৩৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পণ্ডিত বুঢ়ন মিশ্রের উপাখ্যান। - ( সেক শুভোদয়| অবলম্বনে) মহাত্মা শ্ৰীমান লক্ষ্মণ লেন দেব গৌড়দেশের রাজা ছিলেন। তঁহার । সভায় শ্ৰীমান জয়দেব সরস্বতী সঙ্গীতজ্ঞ পণ্ডিত কর্তৃক প্রতিদিন “গীত-গোবিন্দ’ । সঙ্গীতাচাৰ্য্য বুদেৱ গীত হইত। এক দিন এক ব্ৰাহ্মণ রাজ-সভায় উপস্থিত। গৌড় ৰাজসভায় হইয়া লক্ষ্মণ সেনকে বলিলেন, “মহারাজ, জয়যুক্ত হউন। আগমন । আমি একজন প্রসিদ্ধ গায়ক, অধিকন্তু পণ্ডিত। আমার নাম, বুঢ়ন মিশ্র। আমি ওড় দেশ জয় করিয়া গৌড়নগরে আগমন করিয়াছি। ! ওড্রপতি কপিলেশ্বর আমাকে জয়পত্র প্রদান করিয়াছেন, দর্শন করুন। এক্ষণে । ওড্রপতি কপিলেশ্ব- আপনার সভায় যদি কোন গায়ক থাকেন, তাহা । রেরਜੰ “াও হইলে তাহার সহিত আমার সঙ্গীতালাপের পরিচয় । হউক এবং উভয়ের মধ্যে কে শ্রেষ্ঠ তাহার বিচার হউক। অধিকন্তু শাস্ত্রীয় তর্কদ্বারা আমি রাজ-সভা পরাজয় করিব বলিয়াই এ স্থানে আগমন করিয়াছি।” . রাজা লক্ষ্মণ সেন বুঢ়ন মিশ্রের সন্মান করিলেন এবং তঁহাকে উপযুক্ত । আসনে উপবেশন করাইলেন। এই সময়ে জয়দেব সরস্বতী অন্যত্র গমন করিয়াঃ বুলি দিশ ছিলেন, সুতরাং রাজ-সভায় তিনি উপস্থিত ছিলেন না। সঙ্গীতালাপহেতু মহারাজ সভা ভঙ্গ করিয়া সুশীতল ছায়াযুক্ত গঙ্গাতীরস্থ । *****ই্যক্তি অশ্বথতরুতলে অমাত্যগণসহ উপবেশন করিয়া পণ্ডিত বুঢ়ন মিশ্রকে সঙ্গীত আলাপ করিতে বলিলেন। মিশ্র পঠমঞ্জরী" রাগের আলাপ | করিতে আরম্ভ করিলে, পিপ্পলী বৃক্ষের পত্রনিচয় পতিত হইতে আরম্ভ হইল। " রাগালাপ শেষ হইলে বৃক্ষ নিম্পত্ৰ হইয়া গেল। সমাগত জনগণ পণ্ডিতের বিদ্যাবলদৰ্শনে ধন্য ধন্য করিতে আরম্ভ করিল। সপার্ষদ রাজা মোহিত হইলেন এবং বুঢ়ন মিশ্রকে জয়পত্র প্রদান করিবেন, মনস্থ করিয়া বাদ্যোন্তম সহবুঢ়ন মিশ্রকে জয়- কারে তাহার সম্বৰ্দ্ধনা করিতে অনুমতি প্ৰদান করিলেন। পত্র প্রদানের চেষ্টা। বিবিধ বাদ্য বাদিত হইল। এমত সময়ে পণ্ডিত জয়দেব মিশ্রের পত্নী পদ্মাবতী গঙ্গাস্নান সমাপনান্তে নিজ গৃহে আগমন করিতেছিলেন। পথিমধ্যে বাদ্যভাণ্ডের হেতু কি, এক নাগরিককে জিজ্ঞাসা করিয়া তিনি অবগত