পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (চতুর্থ বর্ষ).pdf/৫৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অনুসারে ভালরূপ লিখা-পড়া না শিখিলে মানুষের মনুষ্যত্ব ক্ষরিত হয় না ; বিশেষতঃ ইংরাজী আমাদের রাজভাষা—তােহা না শিখিলে কোন কাৰ্য্যেই আজকাল অগ্রসর হওয়া যায় না এবং বিদ্যা-শিক্ষার ন্যায় মহৎ কাৰ্যও আর কিছুই নাই।” বৃদ্ধ পুত্রের কথার কোন উত্তর না করিয়া একটি দীর্ঘশ্বাস ফেলিয়া বলিয়াছিলেন যে, “দেখ রামতনু, পূৰ্ব্বপাড়ার বসন্ত চাটুজ্জের ইংরাজী শিখিয়া যেরূপ মতিগতি, চাল-চলন দেখিয়াছি, তাহাতে বড়ই আশঙ্কা হয়। বসন্তের তিনটি ছেলে ; বড় ছেলেটির বিবাহ দিয়া একজন সন্ত্রান্ত ব্ৰাহ্মণকে বাস্তুভিটা ছাড়া করিয়াছে।” বসন্ত বাবু সব রেজিষ্টার ছিলেন। তখন সব রেজিষ্টারগণ বেতন পাইতেন না। দলিলের কমিশন বাবদ যাহা পাইতেন, তাহাই তাহদের যথেষ্ট ছিল। তাহার উপর তিনি তারকারী হইতে আরম্ভ করিয়া মৎস্য, পাটা প্রভৃতি গুপ্ত উপহার গ্রহণ করিতেন। এইরূপে "বসন্ত বাবু নিজের অবস্থা পরিবৰ্ত্তিত করিয়া লইয়া এক্ষণে গ্রামে আসিয়া বাস করিতেছেন ও টাকা কার্জ দিয়া তাহার সুব্ধ হইতে বেশ দুই পয়সা রোজগার করিতেছেন। তিনি দুইটি পুত্রকে কলিকাতায় লিখা-পড়া শিখিতে পাঠাইয়াছিলেন; তন্মধ্যে জ্যেষ্ঠ প্রবেশিকায় উত্তীর্ণ হইবামাত্র তাহার বিবাহ দিয়া প্ৰায় তিন হাজার টাকা আত্মসাৎ করিয়াছেন। উদ্দেশ্য, টাকার সুদ হইতেই ছেলের লিখা-পড়ার ব্যয় নিৰ্বাহিত হইবে। কিন্তু দুঃখের বিষয়, বৈবাহিক মহাশয় এক কন্যার বিবাহেই বাস্তুভিটের মায়াপাশ ছিন্ন করিয়া বিদেশে এক জমীদারের চাকরী লইয়া কোনওরূপে সংসারযাত্ৰা নিৰ্বাহ করিতেছেন। ইহাতে রামতনুর মাতা যথেষ্ট ব্যথা অনুভব করিতেন এবং ইহাই বুঝি ইংরাজী শিক্ষার পরিণাম ভাবিয়া পুত্রকে নিরন্ত করিতে প্ৰয়াস পাইয়াছিলেন। "...“ , r; . . . . 鹦 . : يذ . . . . . " ༈ ፥ ዄ P ". . 配 " வ. ዖ • a . 唱 鸭 . . . . ( o ) দেখিতে দেখিতে জলস্রোতের ন্যায় দীর্ঘ চারিটি বৎসর বহিয়া গেল। রামতনু মুখোপাধ্যায় মাতৃহীন হইয়াছেন ; মাতৃবিয়োগে তাঁহাকে তাহার সন্ত্রয়োচিত অনেকগুলি টাকা শ্ৰাদ্ধে ব্যয় করিতে হইয়াছে। তাহার উপর তিনি উপৰ্য্যুপরি দুইটি কন্যার বিবাহ দিতে তিন হাজার টাকা দেনার দায়ে পড়িয়াছেন। এখনও তৃতীয়া কন্যা সরস্বতী অবিবাহিতা-সেও এক বিষম সমস্যা। পুত্র সুশীলকুমার এফ, এ, দিয়াছে। তাহার পরীক্ষায় পাশ হইবার সম্বন্ধে কোনও সন্দেহই ছিল না। । পুত্রের বিবাহ দিয়া টাকা লইতে যদি