পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (চতুর্থ বর্ষ).pdf/৫৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


鼻 r ه و . “ ပုံ;့် -..... '. s . - . = . r: & ". 3. І .. "."ي، " . יי . . . . . . . . . . . . ... : . = " " : ""; مه ۹ ه. به صرف به : : " . . - 邸 。 " ་ - a . • i፡ ? . I . п - M و ، " "" : · ጋኻ a 唱 = mso ... (ቖo....... . * , · ... 1. RL -: . . ... “ 5حسة.RNjnt f NY: N .ז י * ... ঐ কুলগুরু ছিলেন। পটেশ্বরীর সম্পত্তি নিলামে উঠিলে বারুইপুরের বাবুরা নিজ নামে তাহা খরিদ করিয়াছিলেন। সেই হইতেই দুর্গাদাস বাবু সেবাইতগণের ভরণপোষণ ও পূজার ব্যয়ভার নিজেই বহন করিয়া আসিতেছেন। প্ৰবাদ, কৃষ্ণনগরের মহারাজ গোবরা গ্রামখানি পটেশ্বরীর দেবোত্তর দিতে চাহিয়াছিলেন। কিন্তু রামরাম তাহা লইতে অস্বীকার করায় মহারাজ নাকি রামরামকে তাহার ইচ্ছার বিরুদ্ধে গোবরা গ্রাম শেষে ব্ৰহ্মোত্তর দিয়াছিলেন । রামর্যামের বংশধরগণ গবৰ্ণমেণ্টের সেটেলমেণ্ট আইনের অতিরিক্ত ব্ৰহ্মোত্তর ভোগদখল করিতেছিলেন বলিয়া গবৰ্ণমেণ্ট অতিরিক্ত জমী খাস করিয়া লইয়াছেন। সেই কারণে গোবরা গ্রামে বৰ্ত্তমানে গবর্ণমেণ্টের কিছু খাসমহালও আছে, দেখা যায়। রামরাম ঠাকুরে জাপাতলা অতীত কালের এক অক্ষয় পুণ্যস্বরূপ অদ্যাপি ইচ্ছামতী-তীরে দণ্ডায়মান রহিয়াছে। এখনও পৰ্য্যন্ত হিন্দু মুসলমান রামরাম ঠাকুরের সিদ্ধতরু সেই প্ৰাচীন অশ্বখ বৃক্ষকে প্ৰণাম করিয়া থাকে। গ্ৰাম্য বালকরা উপদেবতার ভয়ে কেহ বৃক্ষতল অপবিত্ৰ করিতে সাহস করে না ; শিবচতুৰ্দশীর দিন গাঁজার ভোগ দিয়া যায়। বৃদ্ধ ধীবরগণ ফাল্গুন ও চৈত্র মাসে। নৌকায় গাব মাখাইবার সময় এই গাছতলায় বসিয়া পটেশ্বরী ও রামরাম ঠাকুর “ সম্বন্ধে কত কিম্বদন্তীর অবতারণা করিয়া থাকে! নিবারুণবাবুর অকালমৃত্যু হইল। তদীয় পুত্র সুরেন্দ্রনাথ দুই কন্যা ও একটি পুত্র রাখিয়া উন্মাদ হইয়া বহরমপুর পাগলা-গারদে বাস করি।-- সুরেন্দ্রবাবুর সাধবী স্ত্রীও নাবালক পুত্রকন্যাগুলিকে অকুল পাথারে छांगांऐवा স্বামি-শোক হইতে অব্যাহতি লাভ করিয়াছেন। একজন দাসীই এখন বালকৰালিকাদিগের অভিভাবক। সুরেন্দ্রবাবু গারদে প্রেরিত হইলে নাকি দেবী তঁহার স্ত্রীকে স্বপ্ন দেন, “আমার মূলমন্ত্র তোদের ‘কুলগুরু ব্যতীত অন্য কাহাকেও দিস না। তাহারাই আমার পূজা করিবে।” আমরা যখন গিয়াছিলাম, তখন গিরিজাভূষণের পৈতা পৰ্য্যন্ত হয় নাই। গিরিজাভূষণের জননীর স্বপ্ন হওয়ার পর হইতেই তাহদের কুলগুরু মহাশয় মা’র পুজা ও সেবা করিয়া আসিতেছেন। হরিশ বাবু একজন প্ৰবীণ নিষ্ঠাবান ব্ৰাহ্মণ, “আমরা তাহার নিকট হইতেই পটেশ্বরীসম্বন্ধে অনেক ::জ্ঞাতব্য বিষয় ও জনশ্রুতি সংগ্ৰহ করিয়াছিলাম। পটীর বেদীর চতুঃপার্থে