পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (তৃতীয় বর্ষ - দ্বিতীয় খণ্ড).pdf/৩৩০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Sሳ8&ን ऊर्यांद6 । \o3 kš–SY Ry विख्{ख3 अथभश्क थ्रेिडौम्र: म९गtभश६ । উপযোগস্তু শেষাংশ্চ তৃতীয়স্কন্ধ ইষ্যতে ৷ একো নষষ্টিসমধিক সপ্তশতাব্দেষ্ণু শকনিরেন্দ্ৰস্য । नभडीtडयूनभा&। अग्र५सल थाट्रड वJथT। গাথাসূত্রাণি সুত্ৰাণি চুণিসুত্ৰং তু বাৰ্ত্তিকম। টীকা শ্ৰীবীরসেনীয়াংশেষ পদ্ধতিপঞ্চিক। की योब्रaलूडार्षि डार्थव5न। निप्लफुिडछांशभন্যায়। শ্ৰী জিনসেনসন্মুনিবরৈরাদেশিত থিস্থিতিঃ। টীকা শ্ৰীজয়চিহি? তোরু ধবলা সূত্ৰাখিসম্বোধিনী স্থেয়াদার বিচন্দ্ৰমুজ্জ্বলতম। শ্ৰীপালসম্পাদিতা ৷” ইহার ষষ্ঠ শ্লোকের তাৎপৰ্য্য এই যে, ৭৫৯ শকাব্দে কষায় প্ৰাভৃতের ব্যাখ্যা এই জয়ধবল টীকা সমাপ্ত হইয়াছে। জিনসেনাচাৰ্য্য ‘বৰ্দ্ধমান পুরাণ,’ ‘জিনেদ্ৰগুণন্তুতি’। ‘জয়ধবল টীকা’, “মহাপুরাণ’ ও ‘পার্শ্বভু্যদয়া”—এই পাঁচখানি গ্রন্থের রচয়িতা। কিন্তু সম্পূর্ণ “মহাপুরাণ’ ইহঁর রচিত নহে,-“মহাপুরাণে’র ৪৩ অধ্যায়ের ৩ শ্লোক পৰ্য্যন্ত জিনসেনের প্রণীত, অবশিষ্টাংশ। ইহঁর প্রধান শিষ্য গুণভদ্র প্রণয়ন করেন। জিনসেনের রচিত পূৰ্বাংশের নাম ‘ আদিপুরাণ’ ও গুণাভদ্রের রচিত উত্তরাংশের নাম ‘উত্তরপুরাণ’ —“মহাপুরাণ’ গ্ৰন্থ এই দুই নামে পরিচিত। পুনার প্রফেসর কাশীনাথ বাপুজী পাঠক ‘পার্শ্বভুদয়’ কাব্যের ভূমিকায় লিখিয়াছেন যে, জৈন ‘হরিবংশ” পুরাণ ও জিনসেনের রচিত। * কিন্তু এ সিদ্ধান্ত অভ্রান্ত নহে। “জৈনহিতৈষী” নামক হিন্দী মাসিক পত্রের সম্পাদক শ্ৰীযুক্ত নাথুৱাম প্ৰেমী প্ৰতিপন্ন করিয়াছেন যে, “মহাপুরাণ’ ‘পার্শ্বভু্যদয়” প্রভৃতির রচয়িত জিনসেনাচাৰ্য্য। “হরিবংশের’ প্ৰণেতা নহেন। 4. “Jimasena wrote his first work tlhe Jaina Harivansa in Saka 7o5 when Srivallabha, the son of Krishnaraja I., and the grandfather of Amoghavarsha I. was the reigning sovereign. Jinasena's second work the Parsh wavyadayam must have been composed shortly after Saka 736, while his third and last work the Adipurana, was left unfinished. He wrote only 45 (?) chapters."