পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (তৃতীয় বর্ষ - দ্বিতীয় খণ্ড).pdf/৪৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


by (28 আৰ্য্যবৰ্ত্ত । ७ १६-२२* ९शृंJ । দৃষ্টান্তু। কৈশোর হইতেই তিনি যুদ্ধবিদ্যায় পারদর্শী হইয়া উঠিয়াছিলেন ; কিন্তু শিবাজী ও হায়দার আলির ন্যায় বাল্যকালে লিখা-পড়া শিক্ষার দিকে মনোযোগ করেন নাই। পরে একজন প্রণয়ার্থিনী মহিলার পত্রের প্রত্যুত্তর স্বহস্তে লিখিয়া দিবার জন্য অনুরুদ্ধ হইয়া সাতিশয় লজ্জা অনুভব করেন এবং তদবধি লিখাপড়ায় মনোনিবেশ করেন । দৈবের অনুগ্ৰহে যে তিনি সে বিষয়ে কৃতকাৰ্য্য হইয়াছিলেন, তাহ। তাহার আত্মজীবন কাহিনীর লিপিচাতুৰ্য্য হইতে স্পষ্ট বুঝা যায় ! গ্ৰন্থকারণ আবুনাসের সাইদুল্লা সাহেব বঙ্গভাষায় এই মূল্যবান গ্রন্থের অনুবাদ প্রচার করিয়া যে অদম্য উৎসাহ ও সাহিত্যানুরাগের পরিচয় প্ৰদান করিয়াছেন, তাহার জন্য তিনি বঙ্গসাহিত্যের হিতকারী ব্যক্তিমাত্রেরই ধন্যবাদাভা জন। পরবত্তী সংস্করণে পুস্তকখানিকে ভ্ৰমপ্ৰমাদবিরহিত করিবার জন্য গ্ৰন্থকারকে মনোযোগী হইতে দেখিলে আমরা সুখী হইব । অনুবাদের ভাষা প্রায়ই স্থানে স্থানে আড়ষ্ট হইয়া যায় ; আলোচ্য গ্রন্থেও সে দোষ একান্ত বিরল নহে। সে গুলির পরিহারও বাঞ্ছনীয় ।