পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (তৃতীয় বর্ষ - প্রথম খণ্ড).pdf/১৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৫৪ জা{্যাবৰ্ত্ত । ৩য় বর্ষ। —৩য় সংখ্য । সেই জ্য তিনি নারায়ণীর একটি ছবি প্রধত করাইয়াছিলেন, কাপেড়ে শাড়ী পরা ও কপালে সিন্দুর দেওয়া নারী একটি শিশুকে স্তন্যপান করাইতেছেন। শ এতৎব্যতীত যোগেন্দ্র শেবাশেষি কোমকে খষি নাম দিবার জন্য বড়ই ব্যস্ত হইয়াছিলেন। এই উপলক্ষে আমার সহিত তাহার একটু বাদানুবাদও হইয়াছিল । আমি দেখিলাম, অমরকোষে লিখিতেছে, ঋষয়ঃ সত্যবচসঃ অর্থাৎ ঋবিরা সত্যতাষী ; ইহার অর্থ সাধারণ সত্যবাদী নহে, ইহার অর্থ বাকুসিদ্ধ ; যে ব্যক্তির এমন ক্ষমতা আছে যে, যাহা বলিবেন তাহাই ফলিবে, যেমন শাপ দেওয়া ও বর দেওয়া, ঊাহারাই প্রকৃত ঋষিপদবাচ্য। ঋষি শকের প্রাথমিক অর্থ যে এই প্রকার সঙ্কীৰ্ণ ( limited ) তাহা আমি পূর্কে জানিতাম না। যোগেন্ত্রের সহিত বাদমুবাদ প্রসঙ্গেই সর্বপ্রথম আমার মনে এই অর্থের মূৰ্ত্তি হইল। এ কথা অামি যোগেন্দ্রকে জানাইয়াছিলাম । এবং সেই নিমিত্ত কোষকে ঋষি নাম দেওয়ার বিষয়ে কিঞ্চিৎ ইতস্ততঃ করিয়াছিলাম। যোগেন্দ্র কিন্তু আমার এই পরাভূখতাদর্শনে কতকটা বিরক্ত হইয়াছিলেন। প্রকত কথা এই যে, । যোগেন্দ্র কোমৃতের ধর্মপ্রণালীর যে হিলুয়ানি সংস্করণ করিতে চাহিয়াছিলেন সেটা আমি বিশেষ পছন্দ করিতে পারি নাই। কটন প্রভৃতি ইংরাজ positivistরাও যোগেন্দ্রের নারায়ণ মূর্তির বড় একটা অমুমোদন করিতে পারেন নাই। উক্তপ্রবার প্রবণতার বশবর্তী হইয়া যোগেন্দ্ৰ আরও অগ্রসর হইয়াছিলেন। তিনি জবাকুসুমসঙ্কাশং প্রভৃতি স্বর্য্যের স্তব পর্যন্ত positivism ধর্মের মধ্যে প্রবেশ করাইয়। দিবার। চেষ্টা করিতেছিলেন। এই সমস্ত উমে দেখিয়া আমি বড়ই শঙ্কিত হইয়া ছিলাম, পাছে জিনিষটা বিবেচক লোকদিগের নিকট হা্যাম্পদ হইয়া পড়ে। যাহা হউক, ইহার পর অল্পকালমধ্যেই যোগেন্দ্ৰ লোকলীলা সম্বরণ করিলেন সুতরাং এই সকল উদামও বন্ধ হইয়া গেল। “যোগেন্ত্রের মৃত্যু হইতেই এ দেশে positivismএর আর কেহ পাও1 রহিল না। এখন ত ইহা একপ্রকার নিদ্রাবস্থায় রহিয়াছে । যদিও অবিদিত ভাবে কোনও কোনও ব্যক্তির ইহার দিকে ঝোক থাকে তাহার । প্রকাশ নাই ; পাচ জন একত্র হইয়া সমালোচনা করিবারও কোনও ব্যবস্থা নাই। ফলতঃ আমার বোধ হয় যে, এ দেশ এখনও কোমতের

  • যোগেন্দ্ৰ বাবুর পুত্র এই চিত্রের কিছু পরিবর্তন করাইয়া যে চিত্র অঙ্কিত করাইয়া

ছেন, তাহ৷র প্রতিলিপি ‘আর্য্যাবত্তে’ প্রকাশিত হইল। সম্পাদক।