পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (দ্বিতীয় বর্ষ - প্রথম খণ্ড).pdf/১৪৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্ৰাচীন ভারতে আৰ্য্য ও অনাৰ্য্য । ་་ ༈ ། সভ্যতার কেন্দ্ৰস্থল। unum~ i as [ R ] সাময়িক উন্নতি ও রূচি একস্থানে সীমাবদ্ধ থাকিতে পারে না। যে সময় উত্তর ভারত সভ্যতার পুর্ণমূৰ্ত্তি পরিগ্ৰহ করিয়া বিরাজ, করিতেছিল, সেই সময় দাক্ষিণাত্যের পাৰ্বত্য সমাজেও উত্তর ভারতের সভ্যতার এবং রুচির স্রোত ধীরে ধীরে প্রবেশ লাভ করিতেছিল। উত্তর ভারতে যখন রাজা দশরথ রাজত্ব করিতেছিলেন, সেই সময় দাক্ষিণাত্যের কিষ্কিন্ধ্যা নামক স্থানে অনাৰ্য রাজা বালী প্ৰভুত্ব বিস্তার করিয়া দ্বীয় স্বাভাবিক বলবুদ্ধিতে অরণ্যচর অসভ্য পার্বত্য জাতিদিগকে শাসন করিতেছিল । বিলাসিত উন্নতির ও সভ্যতার লক্ষণ । যে জাতি যত উন্নত ও সভ্য, তাহার বিলাসিভার মাত্রা তত প্ৰবল। অসভ্য বর্বর জাতি সভ্যতার সংস্পর্শে আসিয়া বাকল পরিত্যাগ করিয়া বস্ত্রের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে, গিরিগহবর পরিত্যাগ করিয়া কুটীরের অনুসন্ধানে ফিরে ; ভুশয্যা উপেক্ষা করিয়া পৰ্য্যকের জন্য লালায়িত হয় ; স্বাভাবিক খাদ্য ফলমূলে বীতশ্রদ্ধ হইয়া কৃত্রিম উপায়ে প্ৰস্তুত আহাৰ্য্যদ্বারা ক্ষুৎপিপাসা নিবারণ করিতে প্ৰয়াস পায়। ইহা ক্ৰমোন্নতির लक। किकिकrांत्र अनडा नभांच डथन आर्थी डांब्रडौन नभाकब्र अश्कब्र। এইরূপভাবে বিলাসিতার দিকে অগ্রসর হইতেছিল। কিষ্কিন্ধ্যাবাসী এই সময় বল্কল পরিত্যাগ করিয়া কাপাস বস্ত্রে লজ্জা নিবারণ করিত, ভূমি-শয্যা ও বৃক্ষ-কোঠর-বাস ত্যাগ করিয়া পৰ্য্যাঙ্কের ব্যবহার করিত। তখন ইহারা আৰ্য সমাজের অনুকরণে কতদূর অগ্রসর হইয়াছিল তাহাদের রাজধানীর গঠন-প্ৰণালী হইতেই তাহা উপলব্ধ হইবে। কিষ্কিন্ধ্যা একটি পৰ্ব্বত-গহবর। পৰ্ব্বত-গহবর কিষ্কিন্ধ্যা অনাৰ্য্যরাজ বালীর রাজধানী-ইহা অতি স্বাভাবিক। কিন্তু ইহা সাধারণ পৰ্ব্বত-গুহা নহে ; একটি সুবৃহৎ দ্বার-বিশিষ্ট, কাঞ্চন-ভূষিত যন্ত্র ও ধ্বজাবলীসমাকীর্ণ পুরী ৪৬ তদা কাঞ্চনভূষণাম। প্রাপ্তা: স্ম ধ্বজযন্ত্রাঢ়্যাং কিষ্কিন্ধ্যাং ৰালিনঃ পুৱীং । ( f, SB9 )