পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (দ্বিতীয় বর্ষ - প্রথম খণ্ড).pdf/৩৬৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩৩০ | আৰ্য্যাবর্ত । २ वर्ष, aब ज९थJ । সুতরাং স্কন্দ গুপ্ত মথুরায় আসিয়া নগর রক্ষা করিবার উপায় উদ্ভাবন করিতে লাগিলেন। গোবিন্দ গুপ্ত অল্পসংখ্যক সৈন্য লইয়া মথুরায় আসিয়া স্কন্দ গুপ্তের সহিত মিলিত হইলেন। খুল্লতাত ভ্রাতুষ্পপুত্র একত্র হইয়া কুণগণের প্ৰতীক্ষা করিতে লাগিলেন। নব-পরিণীতা বালিকা মহিষীকে লইয়া কুমার গুপ্ত পাটলীপুত্ৰ হইতে মহোদয়ে আসিলেন। পাটালীপুত্রের প্রাসাদবাসিগণের বাক্যযন্ত্রণা তাহার মহিষীর পক্ষে অসহ্য হইয়া উঠিয়াছিল ; গঙ্গাতীরবর্তী কান্যকুজের প্রাচীন প্রাসাদে আসিয়া বর্ষীয়ান সম্রাট শান্তি লাভ করিলেন। কুণগণ ধীরে ধীরে মথুরার দিকে অগ্রসর হইতে লাগিল। স্কন্দগুপ্ত ও গোবিন্দ গুপ্তকে সাহায্য DBBDDBDBz BBBDBB Bu BBDB BDSS KYLDBBDBB DLDDDDDD DDD প্ৰাচীন সৌরসেন রাজ্য ভাসাইয়া লইয়া গেল, নানাবিধ প্ৰাচীন কারুকাৰ্য্যশোভিত রক্তবর্ণপ্ৰস্তরনিৰ্ম্মিত মথুরার নগরপ্রাকার কুণগণের আক্রমণ রোধ · করিতে সমর্থ হইল না। গোবিন্দ গুপ্ত ও স্কন্দ গুপ্ত সন্তরণে যমুনা পার হইয়া প্রাণরক্ষা করিলেন। ভিখারীর ন্যায়। চীর পরিধান করিয়া কুমার ও মহারাজপুত্ৰ মহোদয় নগরীর তোরণে উপস্থিত হইলেন। দৌবারিকগণ র্তাহাদিগকে BDBBDB KD DDD D DDDB BBDD BDBBB D SS uBD DEEB BD রাজবক্সগুলি অতিক্ৰম করিয়া জাহ্নবী তীরে রাজপ্রাসাদে উপস্থিত হইলেন। সামান্য ভিক্ষুক জ্ঞানে প্ৰতীহারিগণ র্তাহাদিগকে দূর করিয়া দিতেছিল ; রোবে গোবিন্দ গুপ্ত আসি মুক্ত করিলেন। সমুদ্র গুপ্তের নামাঙ্কিত তরবারি দেখিবা মাত্ৰ প্ৰতীহারিগণ নতশির হইল, তাহারা সিপ্রা ও ভাগীরথীীতীরে গোবিন্দ গুপ্তের ক্ষি প্ৰহস্তে সেই অসিচালনা দেখিয়াছিল । কোষমুক্ত অসিহস্তে নিবারণোন্মুখ মিহল্লিকবৰ্গপরিবৃত হইয়া মেঘমুক্ত ভাস্করের ন্যায় উভয়ে সম্রাটের শয়নকক্ষে প্ৰবেশ করিলেন ; দেখিলেন, বর্ষীয়ান সম্রাট মহিষীর জন্য মাল্য রচনায় নিযুক্ত আছেন । পুত্রকে ও কনিষ্ঠ ভ্রাতাকে দেখিয়া বৃদ্ধ অতি লজিত হইলেন। কিন্তু তঁহাকে দেখিয়া গোবিন্দ গুপ্তের ধৈৰ্য্যাচু্যতি হইল। তিনি জ্যেষ্ঠকে সম্বোধন করিয়া পূৰ্ব্বজীবনের কথা বলিতে লাগিলেন। উন্মত্তের জানোদয় হইল না ; বৃদ্ধ সম্রাট অপরাধ স্বীকার করিয়া কুমার ও মহারাজপুত্রের হন্তে রাজ্যভার অর্পণ করিতে চাহিলেন, কিন্তু তরুণী মহিষীর ভ্ৰাভঙ্গী দেখিয়া তাহাও করিতে পারিলেন না। অনেক অনুরোধের পর স্কন্দ গুপ্ত ও গোবিন্দ গুপ্ত মহিষীসমভিবাহারে বৃদ্ধ সম্রাটকে মন্ত্রণাগৃহে আনয়ন করিতে