পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/১৯৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


थांशों, ५५५ श्-लिन। Sás মৃত্যু-মিলন। পঞ্চম পরিচ্ছেদ । كسس 80صصد ब्रांकी । রাত্রি এক প্রহর অতীত হইয়া গিয়াছে। দারুণ গ্রীষ্ম। মধ্যে মধ্যে যে দুই এক পশলা বৃষ্টি হয়, তাহাতে ধরণী, শীতল হয় না। অন্তঃপুরসংলগ্ন উদ্যানে রাণী ও উমা একখানি আসনে উপবিষ্ট। সম্মুখে সরাসীর সচ্ছ সলিলে শশধরের প্ৰতিবিম্ব শোভা পাইতেছে। বাতাসের অভাবে সরাসী-সলিল অকম্পিত্য-স্থির, যেন মসৃণ কাচখণ্ড মাত্র। সরোবরের চারিদিকে সোপানশ্রেণী তীর হইতে জলে নামিয়াছে। তীরে কারুকাৰ্যখচিত প্ৰস্তরস্তম্ভের উপর ছাত-চাদিনী। উত্তরদিকে স্টাদিনীতে রাণী ও উমা উপবিষ্ট । রাণীর মুখ গভীর-যেন তিনি চিন্তাবিষ্টা । তঁহার সৌন্দৰ্য্যে কোমলতার কমনীয় ভাবের কিছু অভাব। নয়নে তীক্ষ দৃষ্টি-প্রখর বুদ্ধির পরিচায়ক। অধরে দৃঢ়তা আত্মপ্ৰকাশ করিতেছে। মুখভাবে ঔদাস্য ও বিলুক্তি সপ্রকাশ-যেন তঁহার ভালবাসিবার, আশা করিবার, আকাজক্ষার কোন বস্তুই নাই ; যেন সুখ বা দুঃখ তাহাকে স্পর্শ করে না । তাহার সৌন্দৰ্য্যও সেইরূপ। তিনি অনিন্দ্যসুন্দরী; কিন্তু সে সৌন্দর্ঘ্যে ভাবেয়া লেশমাত্ৰ নাই। সে সৌন্দৰ্য্য স্থির-স্থায়ী। যেমন কোন ভাবের আতিশয্যে তাহার স্থির হৃদয় চঞ্চল হয় না, তেমনই কোন কারণে র্তাহার সৌন্দৰ্য্য ক্ষুদ্র বা ক্ষীণ হয় না। মাতৃত্বের বিকাশে সে হৃদয় সরসতায় বা সে সৌন্দৰ্য কোমলতায় শোভিত হইবার অবকাশ পায় নাই। তিনি যেন নিপুণ ভাস্করের সার্থক স্বপ্নসৌন্দৰ্য্যের আদর্শ-রূপের প্রতিমা ; কেবল তাহাতে প্ৰাণ নাই । আজ এই উদ্যানমধ্যে বসিয়া রাণী কি ভাবিতেছিলেন। উদ্যান চন্দ্ৰলোক, বিধৌত। চন্দ্ৰলোকে সৌন্দৰ্য্যহীনকেও সুন্দর দেখায়-সুন্দরকে আরও সুন্দয় দেখায়। আজ চন্দ্ৰালোকে উপবনখানি চিত্ৰবৎ প্রতীয়মান হইতেছে। উদ্যানে বড় গাছ নাই। পাতায় পাতায়-ফুলে ফুলে স্নিগ্ধ আলো ; গাছের তলে তরল অন্ধকার। মধ্যে মধ্যে কুঞ্জ-কুঞ্জমধ্যে আলোকসুচিবিন্ধ অন্ধকার, গাঢ় নহে, DD S DD DBBD BDBDD DBiB BBBBYS DD TB BDLS