পাতা:আর্য্য-নারী দ্বিতীয় ভাগ.djvu/১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

SO আর্য্য-নারী । মুশ’লমানগণ ক্রমে উত্তর ভারতবর্ষের অনেক প্রদেশ অধিকার করিয়াছিলেন। কিন্তু, রাজপুত জাতির আদিস্থান রাজপুতানা র্তাহারা কখনো অধিকার করিতে পারেন নাই। যখন পাঠান সম্রাটুগণ দেশশাসন করিতেন, তখন রাজস্থানের রাজপুতগণ সম্পূর্ণ স্বাধীন ছিলেন। মোগল সম্রাটু আকবরের রাজত্বকালেই, মিবারের রাণা ব্যতীত, আর সব রাজপুত রাজারা সম্রাটের বশ্যতা স্বীকার করেন। কিন্তু, নামে মোগলের অধীনতা স্বীকার করিয়া, তাহারা নিজরাজ্য নিজেরাই শাসন করিতেন এবং কখন কখন আকবরের অধীনে সেনাপতিত্ব, বা কোন খণ্ডরাজ্যে শাসনকর্তৃত্ব গ্রহণ করিয়া, সাম্রাজ্যের বিস্তারে সহায়তা করিতেন । রাজপুত রাজগণের মধ্যে, কেহ কেহ প্রাচীন সূর্য্য ও চন্দ্রবংশীয় ক্ষত্রিয় ছিলেন। অন্যান্য সকলে অগ্নিকুল নামে আর নূতন চারিটি বংশের সন্তান। এই অগ্নিকুলের জন্ম সম্বন্ধে একটি অদ্ভুত গল্প আছে। জৈন নামে ভারতবর্ষে একটি ধর্ম্ম সম্প্রদায় আছে। বৌদ্ধ ধর্ম্মের ন্যায়। জৈন ধর্ম্মও হিন্দুজাতি হইতেই উঠিয়াছিল বটে, কিন্তু এই উভয় ধর্ম্মই অনেক পরিমাণে হিন্দুধর্ম্মের মত-বিরোধী। বৌদ্ধ ও জৈনগণের উদয়ে এক সময়ে, ভারতবর্ষে হিন্দুধর্ম্ম ও হিন্দু সমাজ খুব হীনবল হইয়া পড়ে। হিন্দুধর্ম্ম ও হিন্দু সমাজের নেতা ব্রাহ্মণগণ অনেক চেষ্টা করিয়া আবার ভারতবর্ষে হিন্দুর ধর্ম্ম ও সমাজের শক্তি প্রতিষ্ঠা করেন। ব্রাহ্মণ ও জৈনগণের