পাতা:আর্য্য-নারী দ্বিতীয় ভাগ.djvu/২০৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

তারাবাই । ୪ଳକ গ্রাস করিতে না পারে, আজীবন এজন্য অনেক চেষ্টা করিয়াছি; কিন্তু কোন চেষ্টাই আমার সফল হয় নাই । আজ বৃদ্ধিকালে মা ভবানী বুঝি মুখ তুলিয়া চাহিলেন ! জীবন ভরিয়া যে আকাঙ্ক্ষার আগুনে পুড়িয়াছি, বাৰ্দ্ধক্যে তাহা পূর্ণ হইবার সুযোগ উপস্থিত। পেশোয়া তার সৈন্যবল লইয়া শত্রুর রাজ্যে যুদ্ধে ব্যাপৃত। মহাবীর দামাজি গাইকোয়ার তোমার সহায়। এ সুযোগ অবহেলা করিও না। রাজসিংহাসনে রাজা নামে সাজানো পুতুল হইয়া আর থাকিও না, শিবাজির প্রপৌত্র, রাজারামের পৌত্রের যোগ্য গৌরবে রাজশক্তি আপনার হাতে তুলিয়া নাও। আজ ঘোষণা প্রচার কর, পেশোয়া কেউ নয়,-তোমার ইচ্ছার দাস মন্ত্রী মাত্র, তুমি রাজা। আজ হইতে রাজশক্তি তুমিই পরিচালনা করিবে।” কিন্তু ভীত ও কোমল প্রকৃতি রামরাজা পিতামহীর কথা পালন করিতে সাহসী হইলেন না। ক্রোধে অগ্নিমূর্ত্তি হইয়া ভারাবাই কহিলেন,—“কাপুরুষ ! কুলাঙ্গার! শিবাজি ও রাজারামের সাহস, শক্তি ও তেজস্বিতা যখন তুই কিছুই পাস নাই, তাদের বংশধর নাম-গ্রহণ করিবার যোগ্য তুই ন’স। আজ আমি ঘোষণা করিব, তুই এ বংশের কেউ ন’স, নীচকুল হইতে আসিয়া মিথ্যা শিবাজির বংশধর নাম ধরিয়াছিস। পৌত্র বলিয়া আমি আর তোকে কখনো স্বীকার করিব না । আজ হইতে রাজা নামে রাজ-সিংহাসনেও তোকে আমি বসিতে দিৰ না। আজ হইতে শিবাজির পুত্রবধু, রাজারামের সহধর্ম্মিণী