পাতা:আর্য্য-নারী দ্বিতীয় ভাগ.djvu/২৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

戈8幽 আর্য্য-নারী । ইহার পর ওয়েলেসলী ঘোষণা করিলেন যে, ভারতের রাজার কেহ যদি ইংরেজের অধীন হন, সকল কার্য্যে ইংরেজের কথা-মত চলেন, তবে ইংরেজ সকল শক্র হইতে র্তাহাদিগকে রক্ষা করিবেন। ভারতের রাজারা ইহা অপ্রত্যাশিত কল্যাণ বলিয়া মনে করিলেন । অনেকেই নিরাপদে ছায়াশীতল শান্তির আকাঙক্ষায় ইংরেজের অধীন হইলেন। ইহাদের দরবারে রেসিডেণ্ট নামে ইংরেজ-সরকারের এক একজন প্রতিনিধি রহিলেন । রাজারা এই রেসিডেণ্টদের মতানুবর্ত্তী হইয়া নিজ নিজ রাজ্য শাসন করিতে আরম্ভ করিলেন । মারাঠারাজাদের মধ্যে এই সময় হোলকার, সিন্ধিয়া ও ভোসলা রাজারাই বিশেষ প্রবল ছিলেন। পেশোয়া ও গাইকোয়ার কিছু দুর্বল হইয়া পড়েন। প্রবলের ভয়ে দুর্বল পেশোয়া ও গাইকোয়ারও ইংরেজের অধীনতা স্বীকার করিলেন । নামে পেশোয়া এখনো মারাঠারাজাদের প্রভু। সুতরাং প্রভু দ্বিতীয় বাজীরাও এর এই অধীনতা স্বীকারে সিন্ধিয়া এবং ভোস্লারাজারা অবমানিত বােধ করিয়া ইংরেজরাজের সঙ্গে যুদ্ধ করিলেন। যুদ্ধে হারিয়া রাজ্যের অনেক অংশ ইংরেজকে দিয়া তাহারা সন্ধি করিতে বাধ্য হন। পরে হোলকারও ইংরেজের সহিত যুদ্ধ উপস্থিত করেন। যুদ্ধে হােলকার পরাজিত হইলেন। O