পাতা:আর্য্য-নারী দ্বিতীয় ভাগ.djvu/৮৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

4Aby আর্য্য-নারী । দিল্লীতে নজর বন্দী রূপে আকবরের দরবারে ছিলেন। রায়সিংহ আকবরের অধীনতা স্বীকার করিয়া মোগলদেরবারে তঁাহার পারিষদ স্বরূপ ছিলেন। পৃথিরাজ নিতান্ত স্বাধীনতাপ্রিয় তেজস্বী যুবক। আকবরের হস্তে বন্দী হইয়া তিনি দিল্লীতে নীত হন । বন্দী হইলেও আকবর তাহাকে আপন পরিষদের সু্যায় যথাযোগ্য সম্মানে রাখিয়াছিলেন। * প্রতাপের পত্র দিল্লীতে পৌছিল। মোগলের রাজমুকুট রাজস্থানের উজ্জ্বলতম রত্নে ভূষিত হইবে, এ আনন্দে, এ গৌরবে আকবর উল্লাসে মত্ত হইলেন। দিল্লীতে আনন্দ-উৎসব আরম্ভ হইল। কিন্তু পৃথি রাজের প্রাণে বড় আঘাত লাগিল। মোগল বাদ্যসাহিত সকলকেই কিনিয়াছেন, একমাত্র রাণা বংশধর। প্রতাপকেকিনিতে পারেন নাই। সেই প্রতাপ আজ বিক্রীত হইতে চলিলেন ? একমাত্র প্রতাপই রাজপুতকুলের গৌরব রাখিয়া আসিতেছেন, আজ প্রতাপের আত্মসমর্পণে রাজপুতকুল চির দিনের মত হীন হইতে চলিল ! প্রতাপের মত মহাপুরুষও যদি স্বাধীনতার জন্য দারিদ্র্যের ক্লেশ সহিতে না পারেন, হিন্দুর স্বাধীনতা, হিন্দুর গৌরব আর কে রাখিবে ও দারুণ যাতনাময় চিন্তায় পৃথিরাজ জর্জরিত হইলেন। পৃথিরাজ প্রসিদ্ধ কবি ছিলেন। তেজোময়ী ভাষায় স্বাধীনতার মহিমা গাথা লিখিয়া, রাজপুতকুল রবি প্রতাপ যাহাতে স্বাধীনতার সাধনা ছাড়িয়া মোগলের অধীনতা স্বীকার রচনা করেন, এইরূপ অনুরোধ করিয়া তিনি প্রতাপকে এক পত্র