পাতা:আর্য্য-নারী দ্বিতীয় ভাগ.djvu/৯৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

अiरीJ-नांद्री । মারবাররাজ যত বড়ই হউন, বাহিরে কুলমর্য্যাদায় তঁাদের ঘরের কন্যারা যতই বড় হউন, যদি আপনি মোগলের ঘরে কন্যা দান না করেন, আপনার শোণিত যদি মোগল সংস্পর্শে কলঙ্কিত না করেন, যদি আপনার কন্যা আমি মোগলের দাসী না হই, তবে আমরা রাজপুতের রাজপুত গৌরবে, হিন্দুর হিন্দু গৌরবে তাহাদের অনেক উচ্চে থাকিব । দিল্লীর সাম্রাজা আমি চাই না । সাম্রাজ্যের জন্য, ঐশ্বর্য্যের জন্য, ক্ষমতার জন্য, প্রকৃত রাজপুতনী কেহ ধর্ম্মবিক্রয় করিতে চায় না। রাজপুতনী রাজপুতের ধর্ম্মের সঙ্গিনী, গৃহের গৃহিণী, জীবনযাত্রার অংশভাগিনী । মোগলের বেগম তার বিলাসের দাসী মাত্র। মোগলকন্যা, তাতার কন্যা, তুকীকন্যা সেই বেগমরূপ যতই বাঞ্ছনীয় মনে করুক, রাজপুতকন্যা তার অপেক্ষা দীনহীন রাজপুতের কুটীরের গৃহিণীপদও অনেক বেসি গৌরবের বলিয়া মনে করে ।” ধীরে বিক্রম শোলাঙ্কি বলিলেন,-“মা, তোমার কথা সকলই বুঝি। এ বিবাহে আমারও কিছু মাত্র ইচ্ছা বা প্রবৃত্তি নাই। তোমাকে প্রবোধ দিবার জন্যই ঐয়ািপ বলিয়াছিলাম। কিন্তু উপায় নাই। সম্রাটের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করিলে রূপনগর ধ্বংস হইবে, তোমাকেও বলপূর্বক লইয়া যাইবে।” প্রভাবতী কহিলেন,-“রাজপুতনীকে বলপূর্বক অধর্ম্মের পথে লইয়া যাইবে, এ সাধ্য দিল্লীশ্বর কেন, সমস্ত পৃথিবীর রাজারও নাই। রাজপুতনী মরিতে ভয় পায় না । আগুন,