পাতা:আলোচনা - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১২৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


স্বর্গের গান। ১২৩ মিলন । তাই মনে হইতেছে, পৃথিবীর যে প্রান্তে স্বগের আরম্ভ, সেই প্রান্তটিই যেন সৌন্দর্য্য । সৌন্দর্ঘ্য মাঝে না থাকিলে যেন স্বর্গে মর্ভে চিরবিচ্ছেদ হইত। সেনার্য্যে স্বর্গে মর্ত্যে উত্তর প্রত্যুত্তর চলে – সৌন্দর্যের মাহাত্ম্যই তাই, s ল; :ে নদী কিছুই নয় | স্বগের গান। শঙ্খকে সমুদ্র হইতে তুলিয়া আনিলেও সে সমুদের গান ভূলিতে পারে না। উহা কানের কাছে ধর, উহা হইতে অবিশ্রাম সমুদ্রের ধ্বনি শুনিতে পাইবে । পৃথিবীর সৌন্দর্য্যের মৰ্ম্মস্থলে তেমনি স্বর্গের গান বাজিতে থাকে। কেবল বধির তাহ শুনিতে পায় না। পৃথিবীর পাখীর