পাতা:আলোচনা - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তুলনায় অরুচি। २१ তাছাকে সত্য বলিয়া গ্রহণ করিতে পারি না। ইহার কঠিন নৈয়ায়িক লোক, ন্যায়শাস্ত্র অনুসারে সকল কথা বাজাইয়া লন, কবিতার তুলনা উপমা প্রভৃতি নায় শাস্ত্রের নিকট যাচাই করিয়৷ তবে গ্রহণ করেন। অতএব ইহঁাদের কাছে শাস্ত্র অনুসারেই কথা কহ। যাক। জগৎসংসারে কোন জিনিষটা একেবারে স্বতন্ত্র,কোন জিনিষট এতবড় প্রতাপান্বিত যে কোন-কিছুর সহিত কোন সম্পর্ক রাখে না ? জড়বুদ্ধির সকল জিনিষকেই পৃথক করিয়া দেখে, তাহাদের কাছে সবই স্বস্বপ্রধান। বৃদ্ধির যতই উন্নতি হয় ততই সে ঐক্য দেখিতে পায়। বিজ্ঞান বল, দর্শন বল, ক্রমাগত একের প্রতি ধাবমান হইতেছে। সহজচক্ষে যাহাদের মধ্যে আকাশ পাতাল, তাছারাও অভেদাত্মা হইয়া দাড়াইতেছে। এ বিশ্বরাজ্যে বিজ্ঞান বৈজ্ঞানিক ঐক্য, দর্শন দার্শনিক ঐক্য