পাতা:আলোচনা - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সচেতন ধৰ্ম্ম । «» পারে, তবে নিখিল ব্রহ্মাণ্ডের পরিবর্তন হইয় যায়। তুমি স্বার্থপরভাবে বিদ্যা উপার্জন ও । মনের উন্নতি সাধন করিলে, কিন্তু জানিতেও পরিলে না, সে বিদ্যার ও সে উন্নতির লক্ষকোটি উত্তরাধিকারী আছে। তুমি দাও না দাও তোমার সন্তান শ্রেণীর মধ্যে সে উন্নতি প্রবাহিত হইবে । তোমার আশেপাশে চারিদিকে সে উন্নতির ঢেউ লাগিবে। তুমি ত দুই দিনে পৃথিবী হইতে সরিয়া পড়িবে, কিন্তু তোমার জীবনের সমস্তটাই পৃথিবীর জন্য রাখিয়া যাইতে হুইবে—তুমি মরিয়া গেলে বলিয়া তোমার জীবনের এক মুহূর্ত হইতে ধরণীকে বঞ্চিত করিতে পরিবে না, প্রকৃতির আইন এমনি কড়াক্কড় । সচেতন ধৰ্ম্ম । অতএব এ জগতে স্বার্থপর হইবার যে নাই। পরার্থপ্রতাই এ জগতের ধৰ্ম্ম। এই নিমিত্তই