পাতা:আশ্রমের রূপ ও বিকাশ - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করার সময় সমস্যা ছিল।


________________

একদা একজন জাপানী ভদ্রলােকের বাড়িতে ছিলাম, বাগানের কাজে তাঁর ছিল বিশেষ শখ। তিনি বলেছিলেন, আমি বৌদ্ধ, মৈত্রীর সাধক। আমি ভালােবাসি গাছপালা, ওদের মধ্যে এই ভালােবাসার অনুভূতি প্রবেশ করে, ওদের কাছ থেকে সেই ভালােবাসারই পাই প্রতিদান। কেবলমাত্র নিপণে মালীর সঙ্গে প্রকৃতির এই স্বতঃআনন্দের যােগ থাকে না। বলা বাহুল্য মানুষমালীর সম্বন্ধে এ কথা যে সম্পর্ণ সত্য তাতে কোনাে সন্দেহ নেই। মনের সঙ্গে মন মিলতে থাকলে আপনি জাগে খুশি। সেই খুশি সজন

শক্তিশীল। আশ্রমের শিক্ষাদান এই খুশির দান। যাঁদের মনে কত ব্যবােধ আছে কিন্তু খুশি নেই তাঁদের দোসরা পথ। | পুরাকালে আমাদের দেশের গহস্থ ধনের দায়িত্ব স্বীকার করতেন। যথাকালে যথাস্থানে। যথাপাত্রে দান করার দ্বারা তিনি নিজেকেই জানতেন