পাতা:ইংরেজের জয় বা আরকট অবরোধ ও পলাশী.pdf/২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

আরেকট-অবরোধ । নাসির জঙ্গ সবলে পিতৃ-সিংহাসন অধিকার করিয়াছিলেন। ১৫ তাহার ভাগিনেয় মুজঃফর জঙ্গ দাক্ষিণত্যের সিংহাসন-লালসায় তাহার ঘোর প্রতিদ্বন্দ্বী হইয়াছিলেন। কর্ণাটি রাজ্য নিজাম রাজ্যের অধীন বটে ; কিন্তু এ কর্ণাট রাজ্যও নিরুদ্বেগ ছিল না । নিজাম-উল-মুল্ক জীবিতাবস্থায় আনার-উদ্দীন নামক এক ব্যক্তিকে কর্ণাটের নবাব-পদে অভিষিক্ত করিয়া গিয়াছিলেন। ণ আনার-উদ্দীনেরও এক জন [প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন। তাহার নাম চাদী সাহেব। চাঁদ সাহেব, আনার-উদ্দীনের পূর্বগত নবাব দোস্ত f

  • নাসির জঙ্গকে ইংরেজ সাহায্য করিয়াছিলেন। এই জন্য কি, অন্য কোন কারণে বলিতে পারি না, মেকলে লিখিয়াছেন,—“নাসির জঙ্গই নিজাম"সিংহাসনের প্রকৃত অধিকারী।” কিন্তু প্রকৃত কথা তাঙ্গা নহে। নাসির জঙ্গ লম্পট ও দুশ্চরিত্র ছিলেন। এই জন্যই নিজাম-উল-মুগ্ধ দৌহিত্র মুজািল । 'জঙ্গকে সিংহাসন দিবার সঙ্কল্প করিয়াছিলেন। | + এরূপ শাসক নিয়ােগ করিবার ক্ষমতা অবশ্য নিজামের পূর্বে ছিল না। নিজাম দিল্লীশ্বরের অধীন ছিলেন । কর্ণাট নিজামের অধীন বটে ; কিন্তু হার শাসক নিয়োগ করিবার ভার দিল্লীশ্বর তখনও ত্যাগ করেন নাই । অরেঞ্জিবের মৃত্যুর পর দিল্লী সাম্রাজ্যের অধঃপতনের সূত্রপাত হয়। ইহার পর শাসন।শক্তি এক বারে শিথিল হইয়াছিল। এই অবসরে নিজাম-উল-মুল্ক স্বয়ং স্বাধীন হইয়া পড়েন । তিনি কর্ণাটের শাসক নিয়োগের ভার নিজ श्Çरष्ठ व्जङ्ग्रेश्वििछ6ञ्जन् ।