পাতা:ইন্দুমতী - যতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/১১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
৯৯
দ্বিতীয় খণ্ড-তৃতীয় সর্গ।

 গভীরা রজনী এবে সুপ্তা বসুন্ধরা,
 নাহি কোন সাড়াশব্দ জন-মানবের।
 মাঝে মাঝে শুনা যায় কুক্কুর চিৎকার,
 শৃগালের খেক্কা রব দূর গ্রাম হ’তে
 ভাসিয়া আসিছে নৈশ বায়ুস্তর দিয়া।
 মাঝে মাঝে শুনা যায় বাদুড়ের আর
 পক্ষ সঞ্চালন শব্দ। বৃক্ষের শাখায়
 পেচক গম্ভীর রবে ডাকে মাঝে মাঝে।
 মাথার উপরে কত শত গ্রহ তারা,
 ছায়াপথ,সমুজ্জ্বল করেছে গগন।
 এক মহা নীরবতা ব্যাপ্ত চরাচর।
  পথের উপরে এক বৃক্ষের তলায়,
 বৃক্ষের আঁধারে বসে দস্যু এক দল,
 সম্মুখে লুষ্ঠিত দ্রব্য পূর্ণ থলিকায়,
 বিশ্রাম করিতেছিল মুছি ঘর্ম্ম জল।
  দেবব্রত আর তা’র সহচরে দেখি
 জনৈক কহিল উচ্চে, “কে সায় ওখানে?”
উত্তর।  পথিক।
দস্যু।   এখানে এস, লহ এই মোট।
 আমরা সকলে শ্রান্ত বহিতে অক্ষম।
দেব। গৃহেতে মুমূর্ষু,রোগী বড় ব্যস্ত এবে।
দস্যু। অবাধ্য হইলে গুলি করিব তোমায়।